প্রধানমন্ত্রী কক্সবাজারে মেরিন ড্রাইভ সহ ৭ প্রকল্পের উদ্বোধন করবেন শনিবার

marin drive road pic

নিজস্ব প্রতিবেদক, ০৫ মে: কক্সবাজারে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে স্বাগত জানিয়ে বরণ করতে সকল প্রকার প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। কক্সবাজার জেলা প্রশাসন, সেনা বাহিনী, আওয়ামীলীগ, আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা যে যার অবস্থান থেকে এ প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে। প্রশাসন ও সেনা বাহিনীর পক্ষে কক্সবাজারের মেরিন ড্রাইভ সড়কের উদ্বোধন সহ ৭ টি প্রকল্পের উদ্বোধনের প্রস্তুতি শেষ করেছে। আর কক্সবাজার শেখ কামাল আর্ন্তজাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে জনসভার প্রস্তুতি নিয়েছে আওয়ামীলীগের পক্ষে। আওয়ামীলীগের নেতারা জানিয়েছেন সভায় লাখো মানুষের সমাগম হবে। জনসভার মঞ্চ তৈরীর কাজও শেষ হয়েছে। আর নিরাপত্তার জন্য প্রস্তুত রয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।

কক্সবাজার শহরের কলাতলী থেকে টেকনাফ পর্যন্ত ৮০ কিলোমিটার দীর্ঘ মেরিন ড্রাইভ সড়কটি কক্সবাজার জেলাবাসির স্বপ্নের সড়ক। আর ওই সড়কটি উদ্বোধনে শনিবার কক্সবাজার আসছেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা।

কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মো. আলী হোসেন জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী কক্সবাজার সফরে একটি জনসভায় প্রধান অতিথির ভাষণ ছাড়াও ৭ প্রকল্পের উদ্বোধন করেন। এর সাথে ৮ প্রকল্পের ভিত্তি প্রস্থর স্থাপন করবেন। এর মধ্যে কক্সবাজার আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে তিনি নিজে একটি আন্তর্জাতিক বিমান যোগে এসে আন্তর্জাতিক বিমান চলাচলের উদ্বোধন করবেন। এরপর তিনি ইনানীস্থ মেরিন ড্রাইভ সড়কের ২৬ কিলোমিটার এলাকায় সেনা বাহিনীর অধিনে নির্মিত মেরিন ড্রাইভ সড়কের উদ্বোধন ঘোষণা করবেন। এছাড়া কক্সবাজার সরকারি কলেজের একাডেমীক ভবন, কক্সবাজার সরকারি কলেজ ও সরকারি মহিলা কলেজের ছাত্রী নিবাস, মহেশখালী-আনোয়ারা গ্যাস সঞ্চালন পাইপ লাইন, উখিয়ার বঙ্গমাতা মুজির মহিলা কলেজের ভবন উদ্বোধন করবেন। প্রধানমন্ত্রী একই সঙ্গে বাঁকখালী নদীর উপর বক্সগার্ড ব্রীজ, কক্সবাজার আইটি পার্ক, নাফ ট্যুরিজম পার্ক, এলএনজি টার্মিনাল, এসপিএম প্রকল্প, কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের কার্যালয় ও কুতুবদিয়া কলেজের ভবন নির্মাণের কাজের ভিত্তি প্রস্থর স্থাপন করবেন। এর জন্য সকল প্রস্তুতি শেষ করা হয়েছে।

জেলা প্রশাসক জানান, প্রধানমন্ত্রীর এ সফর সফল ও সুন্দরভাবে সম্পন্ন করতে সকল স্তরের কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক নেতা, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সমন্বয়ে পরিকল্পিতভাবে কাজ করছে। এতে প্রধানমন্ত্রীকে কক্সবাজারবাসি সফলভাবে শ্রদ্ধা ও স্বাগত জানাবে।

কক্সবাজারের পুলিশ সুপার ড. একেএম ইকবাল হোসেন জানান, প্রধানমন্ত্রীর সফরে নিরাপত্তার জন্য প্রস্তুত রয়েছে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। তিন স্তরের নিরাপত্তায় প্রধানমন্ত্রী সুন্দরভাবে কক্সবাজার সফর শেষ করেছেন।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like