বিশ্বের লম্বা ১০ নারী

Tall_woman_Top20170416080121বিনোদন ডেস্ক : পৃথিবীর সব মানুষের চেহারা যেমন একরকম না তেমনি তাদের শারীরিক গঠনও আলাদা। মানুষে মানুষের শারীরিক গঠন আলাদা হলেও পৃথিবীতে এমন কিছু মানুষ রয়েছে যাদের উচ্চতা তুলনামূলক অস্বাভাবিক বেশি।

অস্বাভাবিক মাত্রায় শারীরিক উচ্চতার কারণে পৃথিবীময় আলোচিত ব্যক্তিত্বে পরিণত হয়েছেন তারা। জন্মগত কিংবা জন্মের পর তাদের শারীরিক গঠন নিয়ে নানা সমস্যা দেখা দেয়। আর এ কারণে স্বাভাবিক জীবনযাপন করতেও পারে না লম্বাকৃতির মানুষেরা। যাদের অনেকে আবার মৃত্যুবরণও করেছেন। বিশ্বের লম্বা দশ নারীকে নিয়ে সাজানো হয়েছে এই প্রতিবেদন।

ইয়াও ডিফেন : ইয়াও ডিফেন পৃথিবীর দীর্ঘতম নারী ছিলেন। চীনে এক কৃষক পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন তিনি। জন্মের পর থেকেই শারীরিকভাবে অসুস্থ ছিলেন তিনি। তার উচ্চতা ৭ ফুট ৮ ইঞ্চি। ওজন ছিল ২০০ কেজি। ইয়াও ছোটবেলা থেকেই ডায়েট করতেন। তার বয়স যখন ১১ বছর তখন তার উচ্চতা ছিল ৬ ফুট ২ ইঞ্চি। মাত্র ১৫ বছর বয়সে তার উচ্চতা হয় ৬ ফুট ৯ ইঞ্চি। জীবদ্দশায় ইয়াও ঠিকমতো চিকিৎসা করাতে পারেনি। কারণ তাদের আর্থিক অবস্থা ভালো ছিল না।  ২০১২ সালে ৪০ বছর বয়সে মৃতুবরণ করেন ইয়াও।

স্যানডি অ্যালেন : স্যানডি অ্যালেন পৃথিবীর দ্বিতীয় দীর্ঘতম নারী ছিলেন। ১৯৫৫ সালে জন্মগ্রহণ করেন তিনি। তার উচ্চতা ৭ ফুট ৭.৫ ইঞ্চি। স্যানডি হুইল চেয়ার নিয়ে চলাচল করতেন। এতো উচ্চতার কারণে শারীরিক অনেক সমস্যায় ভুগেছেন তিনি। ২০০৮ সালে মৃতুবরণ করেন স্যানডি। মৃত্যুর আগের বছর শয্যাশয়ী জীবনযাপন করেছেন এই দীর্ঘতম নারী।

মালগোরজাতা ডাইডেক : আমেরিকায় জন্মগ্রহণ করেন মালগোরজাতা ডাইডেক। তার উচ্চতা ৭ ফুট ২ ইঞ্চি। আর এই উচ্চতার কারণে তিনি বাসকেটবল দলের সদস্য ছিলেন। তিনি ডেভিড নামে একজনের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। এই দম্পতির দুটি সন্তান রয়েছে।

জয়নব বিবি : পৃথিবীর দীর্ঘতম আরেক নারীর নাম জয়নব বিবি। তার উচ্চতা ৭ ফুট ২ ইঞ্চি। পাকিস্তানি এই নারী পরবর্তীতে ব্রিটেনে চলে যান। কারণ তার উচ্চতা নিয়ে তার পরিবার খুব বিব্রতকর পরিস্থিতির মধ্যে ছিলেন। প্রথমে রাজনৈতিক আশ্রয় প্রার্থনা করলে প্রত্যাখ্যাত হন তিনি। পরবর্তীতে ২ বছরের জন্য গ্রেটার ম্যাচেস্টার ব্রিটেনে বসবাসের ব্যবস্থা করে দেয়।

উলজানা সেমজোনোভা :  উলজানা সেমজোনোভা। তার উচ্চতা ৭ ফুট ১ ইঞ্চি। তিনি খুব ভালো একজন বাস্কেট বলারও। ভলান্টারি স্পোর্টস সোসাইটির হয়ে খেলতেন তিনি। সোভিয়ত ইউনিয়ন ও ইউরোপিয়ন চ্যাম্পিয়নস কাপ ১৫ বার বিজয়ী উলজানা। ৬৫ বছর বয়সি উলজানার খেলার নৈপুণ্য আন্তর্জাতিকভাবে ছড়িয়ে পড়ে।

গীতিকা শ্রীবাস্তাবা : গীতিকা শ্রীবাস্তাবা। বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা নারীর মধ্যে অন্যতম তিনি। তার উচ্চতা ৬ ফুট ১১ ইঞ্চি। গীতিকা ভারতীয় ন্যাশনাল উইম্যান বাস্কেট বল দলের সদস্য।

ম্যালি ডাংডি : ম্যালি ডাংডি এশিয়ার দ্বিতীয় লম্বা নারী। থাইল্যান্ডে জন্মগ্রহণ করেন তিনি। তার  উচ্চতা ৬ ফুট ১০ ইঞ্চি। ওজন ১২৭ কেজি। ম্যালি ছোটবেলা থেকেই অন্যদের তুলনায় বেশি বাড়তে থাকেন। যদিও তা কোনোভাবে নিয়ন্ত্রণ করতে পারেননি। উচ্চতা নিয়ন্ত্রণের জন্য অনেক ব্যয়বহুল ইনজেকশনও পুশ করা হয় ম্যালিকে। কিন্তু আর্থিক অবস্থা খুব ভালো না থাকায় এ ইনজেকশন নিয়মিত পুশ করতেও পারেননি ম্যালির পরিবার।

ক্যারলিন ওয়েলজ : জার্মানির মেয়ে ক্যারলিন ওয়েলজ। তিনি পৃথিবীর লম্বা নারীদের অন্যতম। তার উচ্চতা ৬ ফুট ৯ ইঞ্চি। তিনি জার্মানির জনপ্রিয় একজন ব্যক্তিত্ব। ছোটবেলা থেকে ক্যারলিন অতিমাত্রায় বাড়তে থাকেন। জার্মানিতে অনেক লম্বা মানুষ রয়েছেন। কিন্তু তিনি জার্মানির সবচেয়ে লম্বা নারী।

রিতা মিনিভা বেসা : জিম্বাবুয়ে জন্মগ্রহণ করেন রিতা মিনিভা বেসা। বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক তিনি। তার উচ্চতা ৬ ফুট ৮ ইঞ্চি। তার ভালো উচ্চতার জন্য তিনি বাস্কেট বল দলের সদস্যপদ পান।

হিদার গ্রিন : আমেরিকায় জন্মগ্রহণ করেন হিদার গ্রিন। তার উচ্চতা ৬ ফুট ৫.৫ ইঞ্চি। উচ্চতার জন্য আমেরিকার জনপ্রিয় ও সম্মানিত একজন নারী ব্যক্তিত্ব হিদার। তার উচ্চতা ও স্বাস্থ্যের জন্য পোশাক নিয়ে নানা সমস্যায় পড়তে হয় তাকে।

সূত্র : রাইজিংবিডি

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like