ঐশ্বরিয়ার গায়ে কখনোই হাত তোলেননি সালমান!

সালমানের রগচটা স্বভাবকেই বরাবর বিচ্ছেদর কারণ বলে দাবি করে এসেছিলেন তার সাবেক প্রেমিকা ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন। কিন্তু সম্প্রতি প্রকাশিত এক সাক্ষাতকারে সালমান বললেন ভিন্ন কথা। জীবনে মাত্র একবারই নাকি কারো গায়ে হাত তুলেছিলেন সালমান এবং সেটি অবশ্যই ঐশ্বরিয়া নন- এমনটাই দাবি ‘সুলতান’ খ্যাত এ অভিনেতার।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসে প্রকাশিত এক সাক্ষাতকারে সালমান বলেন, “আমি কখনোই ঐশ্বরিয়ার গায়ে হাত তুলিনি। আমি জীবনে একবারই কারও গায়ে হাত তুলেছিলাম আর সেটি অবশ্যই ঐশ্বরিয়া নয়।”

তবে কার গায়ে হাত তুলেছিলেন ‘বজরঙ্গী ভাইজান’? সে উত্তরই দিয়েছেন তিনি নিজেই!

সালমান বলেন, “একবার একটি ঘটনায় আমি নিজের উপর নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেছিলাম আর পরিচালক সুভাষ ঘাইয়ের গায়ে হাত তুলেছিলাম। সেবার কোনো একটি ঘটনায় রেগে গিয়ে তিনি আমার দিকে একটি প্লেট ছুড়ে মেরেছিলেন এবং আমাকে ঘাড় ধাক্কা দিয়ে তার ঘর থেকে বার করে দিতে যাচ্ছিলেন। এর পাল্টা জবাব হিসেবে আমিও তার উপর চড়াও হয়েছিলাম।”

তবে সে তিক্ততা বেশিদিন টিকে থাকেনি। বাবা সেলিম খানের হুকুমে পরদিনই সুভাষ ঘাইয়ের কাছে দিয়ে ক্ষমা চাইতে হয়েছিলো সালমানকে। পরবর্তীতে মিডিয়ায় ভালো বন্ধু হিসেবেই টিকে ছিলো তাদের সম্পর্ক। সুভাষ ঘাইয়ের সিনেমা ‘যুবরাজ’-এ অভিনয় করেছিলেন সালমান।

-বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like