ভারতের একমাত্র সক্রিয় আগ্নেয়গিরিতে ফের উদগিরণ

volcano-genericআন্তর্জাতিক ডেস্ক : আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জে অবস্থিত ভারতের একমাত্র আগ্নেয়গিরিটি ফের ছাই ও লাভা উদগিরণ শুরু করেছে। ১৫০ বছরেরও বেশি সময় সুপ্ত থাকার ১৯৯১ সাল থেকেই আগ্নেয়গিরিটিতে জেগে ওঠার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছিল বলে শুক্রবার জানিয়েছে গোয়া-ভিত্তিক ন্যাশনাল ইনিস্টিটিউট অব ওশেনোগ্রাফির (এনআই্ও) গবেষকরা, খবর এনডিটিভির।

এক বিবৃতিতে সিএসআইআর-এনআইও বলেছে, “আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের একমাত্র সক্রিয় আগ্নেয়গিরিটি ফের উদগিরণ শুরু করেছে। পোর্ট ব্লেয়ার থেকে ১৪০ কিলোমিটার উত্তর-পূর্বে ব্যারেন দ্বীপের এই আগ্নেয়গিরিটি ১৫০ বছর পর ১৯৯১ সালে উদগিরণ শুরু করে, তারপর থেকে মাঝে মাঝেই এটি সক্রিয়তা দেখিয়ে আসছে।”

অভি মুডহোলকারের নেতৃত্বে সিএসআইআর-এনআইওর বিজ্ঞানীদের একটি দল এক প্রতিবেদনে জানিয়েছেন, আগ্নেয়গিরিটি ফের সক্রিয় হয়ে ধোঁয়া ও লাভা উদগিরণ করছে। এনআইও বলেছে, “২৩ জানুয়ারির বিকেলে সিএসআইআর-এনআইও’র গবেষণা জাহাজ আর ভি সিন্ধু সংকল্পতে থাকা বৈজ্ঞানিক দলটি ব্যারেন আগ্নেয়গিরির কাছে আন্দামান বেসিনে সমুদ্রতলের নমুনা সংগ্রহ করছিল, তখন হঠাৎ আগ্নেয়গিরিটি ছাই উদগিরণ শুরু করে। “দলটি আগ্নেয়গিরি সংলগ্ন এলাকা থেকে প্রায় এক মাইল দূরে সরে গিয়ে নিবিড়ভাবে ঘটনা পর্যবেক্ষণ করতে শুরু করে। থেকে থেকে পাঁচ থেকে দশ মিনিট ধরে উদগিরণ চলতে থাকে।”

দিনের বেলার পর্যবেক্ষণে শুধু ছাই দেখা যায়, কিন্তু সূর্যাস্তের পর দলটি আগ্নেয়গিরির মুখ থেকে লাল লাভা উদগিরিত হতে দেখে এবং আগ্নেয়গিরির ঢাল বেয়ে নেমে আসা গরম লাভার স্রোত দেখতে পায়। এরপর ২৬ জানুয়ারি ভোরে বি নাজেন্দ্রর নাথের নেতৃত্বে একই জাহাজ নিয়ে সেখানে গিয়ে আগ্নেয়গিরিটিতে বিস্ফোরণ ও ধোঁয়া দেখতে পান বিজ্ঞানীরা।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like