চকরিয়ায় স্বামীর সঙ্গে ঝগড়া করে গৃহবধূর আত্মহত্যা

Attohottaচকরিয়া প্রতিনিধি, ০১ ফেব্রুয়ারী: কক্সবাজারের চকরিয়া পৌরসভার তিন নম্বর ওয়ার্ডের একটি ভাড়া বাসায় গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে এক গৃহবধূ। এই অবস্থায় তাদের শিশু সন্তানের কান্নার শব্দ শুনে পাশ্ববর্তী বাসিন্দারা খবর পৌঁছান স্বামীর কাছে। পরে স্বামী এসে দরজা ভেঙে ভাড়া বাসার চালার সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় ওই বধূর নিথর দেহ উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে। বুধবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে পৌরসভার তিন নম্বর ওয়ার্ডের ফুলতলা গ্রামের আকতার আহমদ সওদাগরের ভাড়া বাসায় এ ঘটনা ঘটে।
আত্মহত্যা করা গৃহবধূর নাম জাহেদা বেগম (২০)। তিনি কক্সবাজার সদর উপজেলার ঈদগাঁও ইউনিয়নের সাত নম্বর ওয়ার্ডের শিয়া পাড়ার লাল মিয়ার স্ত্রী।
পাশ্ববর্তী বাসিন্দাদের বরাত দিয়ে চকরিয়া থানার এসআই মাজেদুল ইসলাম জানান, গৃহবধূ জাহেদা বেগমের স্বামী লাল মিয়া রাজমেস্ত্রীর কাজ করেন। তারা কয়েকবছর ধরে চকরিয়া পৌরসভার ফুলতলায় ভাড়া বাসায় বসবাস করে আসছিলেন। বুধবার সকালে স্বামী লাল মিয়ার কাছ থেকে ২০০ টাকা চান। এ সময় স্বামী বলেন, তোমার কাছে রক্ষিত টাকা থেকে খরচ কর। এনিয়ে স্বামীর সঙ্গে ঝগড়া হয় স্ত্রীর। একপর্যায়ে স্বামী কাজে চলে গেলে বাসার দরজা ভেতর থেকে আটকে দিয়ে গলায় রঁশি পেঁচিয়ে চালার সঙ্গে ঝুলে আত্মহত্যা করেন গৃহবধূ জাহেদা বেগম।
এসআই মাজেদুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে হাসপাতালে গিয়ে মৃতদেহের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করার সময় জাহেদা বেগমের গলায় রঁশি পেঁচানোর দাগ পাওয়া যায়।
চকরিয়া থানার ওসি মো. জহিরুল ইসলাম খান বলেন, ‘লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। গৃহবধূর পরিবারের পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ পেলে পরবর্তী আইনগত পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like