কাদের সিদ্দিকীর আপিল শুনবে পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চ

10_Kader+Siddique_19102015_0004রাজনীতি ডেস্ক :  টাঙ্গাইল-৪ আসনের উপ-নির্বাচনে কাদের সিদ্দিকীর মনোনয়নপত্র অবৈধ ঘোষণা করে দেওয়া হাই কোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে আপিলের শুনানি হবে পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে।

মঙ্গলবার বিষয়টি প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন চার বিচারকের আপিল বেঞ্চে তোলা হলে এই আদেশ আসে।

কাদের সিদ্দিকীর আপিল বুধবার পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে শুনানির জন‌্য রেখেছেন প্রধান বিচারপতি।

কাদের সিদ্দিকীর আইনজীবী রাগীব রউফ চৌধুরী আদেশের পর সাংবাদিকদের বলেন, গত ১১ জানুয়ারি প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বে চার বিচারকের বেঞ্চে আপিল শুনানি শুরু করেছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী এ জে মোহাম্মদ আলী। পরে আদালত শুনানি মুলতবি করে বলেছিল, এ আপিলের শুনানি কয়জন বিচারপতি শুনবেন তা পরে ঠিক করা হবে।

সে অনুযায়ী মঙ্গলবার বিষয়টি কার্যতালিকায় এলে প্রধান বিচারপতি তার সিদ্ধান্ত দেন।

দশম সংসদ নির্বাচনে টাঙ্গাইল-৪ (কালিহাতী) আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন কাদের সিদ্দিকীর বড় ভাই লতিফ সিদ্দিকী। হজ নিয়ে মন্তব‌্য করে সমালোচনার মধ‌্যে তাকে মন্ত্রিত্ব ও দলীয় পদ হারাতে হয়।

শেষ পর্যন্ত ২০১৫ সালের ১ সেপ্টেম্বর তিনি সংসদ থেকে পদত্যাগ করতে বাধ‌্য হন। এরপর আসনটি শূন্য ঘোষণা করে ৩ সেপ্টেম্বর গেজেট প্রকাশ করে সংসদ সচিবালয়।

এরপর নির্বাচন কমিশন (ইসি) টাঙ্গাইল-৪ আসনে উপ-নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করলে অন্য দলের পাশাপাশি কৃষক-শ্রমিক-জনতা লীগের প্রার্থী হিসেবে কাদের সিদ্দিকী মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। কিন্তু ঋণখেলাপের অভিযোগে রিটার্নিং কর্মকর্তা তার মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করেন।

এর বিরুদ্ধে ইসিতে আপিল করলে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের (সিইসি) নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের নির্বাচন কমিশন কাদের সিদ্দিকীর আপিল খারিজ করে তার মনোনয়নপত্র বাতিলের চূড়ান্ত রায় দেয়।

এরপর নির্বাচন কমিশনের আদেশের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাই কোর্টে রিট আবেদন করেন কাদের সিদ্দিকী। গত বছরের ৪ ফেব্রুয়ারি হাই কোর্ট নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্তকেই বৈধতা দিলে তার নির্বাচনে লড়ার চেষ্টা ব‌্যর্থ হয়ে যায়।

নির্বাচন করতে না পারলেও হাই কোর্টের ওই রায়ের বিরুদ্ধে লিভ টু আপিল করেন কাদের সিদ্দিকী। গতবছর ১৫ মার্চ আপিল বিভাগ তাকে আপিলের অনুমতি দেয়।

সূত্র : বিডিনিউজ।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like