বেসরকারি ১০ মেডিকেল কলেজের বিষয়ে রায় প্রকাশ

ea3e489d-bd4d-403b-b466-74ddcb96abc2

স্বাস্থ্য ডেস্ক :  ২০১৪-১৫ শিক্ষাবর্ষে ১৫৩ শিক্ষার্থী ভর্তিতে আইনের শর্ত লঙ্ঘন করায় দশ বেসরকারি মেডিকেল কলেজকে এক কোটি টাকা করে জরিমানার পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশিত হয়েছে।

বুধবার (১১ জানুয়ারি) সুপ্রিম কোর্টের ওয়েবসাইটে এ রায় প্রকাশ করা হয়।

এর আগে গত ২১ আগস্ট এ বিষয়ে রায় দেন আপিল বিভাগ।

আইনের শর্ত লঙ্ঘন করায় জরিমানা করা মেডিকেল কলেজগুলো হচ্ছে- শমরিতা মেডিকেল কলেজ, সিটি মেডিকেল কলেজ, নাইটিংঙ্গেল মেডিকেল কলেজ, জয়নুল হক শিকদার মেডিকেল কলেজ, এ আর মেডিকেল কলেজ, ইস্ট-ওয়েস্ট মেডিকেল কলেজ, তাইরুন নেছা মেডিকেল কলেজ, আইচি মেডিকেল কলেজ, কেয়ার মেডিকেল কলেজ ও আশিয়ান মেডিকেল কলেজ।

২০১৪-১৫ শিক্ষাবর্ষে এমবিবিএস/বিডিএস কোর্সে শিক্ষার্থী ভর্তি পরীক্ষায় ২০০ এর মধ্যে ১২০ নম্বর পাওয়া ছাত্র/ছাত্রীদের ভর্তি করা যাবে এবং ছাত্র/ছাত্রীদের লিখিত পরীক্ষায় ৪০ নম্বর পেতে হবে বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছিল স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। একই সিদ্ধান্ত নেয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ও।
ভর্তি পরীক্ষার নম্বরের এ শর্ত পূরণ না হওয়ার পরও ১৫৩ জন শিক্ষার্থীকে ভর্তি করায় ওই দশটি মেডিকেল কলেজ।

পরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ভর্তি হওয়া ওই ১৫৩ শিক্ষার্থীর প্রথম পর্বের (ফার্স্ট প্রফেশনাল এক্সামিনেশন) রেজিস্ট্রেশন কার্ড ও প্রবেশপত্র আটকে দেয়।

এর বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট আবেদন করেন ১৫৩ শিক্ষার্থী। এ আবেদনের শুনানি নিয়ে গত ১৩ জুন ৭২ ঘণ্টার মধ্যে শিক্ষার্থীদের রেজিস্ট্রেশন কার্ড ও প্রবেশপত্র দেওয়ার আদেশ দেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে রুলও জারি করেন।

হাইকোর্টের এ আদেশের বিরুদ্ধে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ লিভ টু আপিল করে।

প্রকাশিত রায়ে বলা হয়, এ রায়ের পর্যবেক্ষণে আদালত বলেছেন, মেডিকেল কলেজগুলোতে এমবিবিএস, বিডিএস কোর্সে ছাত্র ভর্তির ক্ষেত্রে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের দেওয়া সিদ্ধান্ত ভঙ্গ করতে পারবে না। সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের বেধে দেওয়া শর্তানুযায়ী মেডিকেল কলেজগুলোকে অনুযায়ী চলতে হবে।

এমবিবিএস, বিডিএস কোর্সে মেডিকেল গ্রাজুয়েশন সনদ দেওয়ার একচ্ছত্র ক্ষমতা শুধুমাত্র বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে নিবন্ধিত কলেজগুলোর গাইড লাইন মেনে চলার বাধ্যবাধকতা রয়েছে। কিন্তু সেটি না মেনে ভর্তির ক্ষেত্রে কলেজগুলো শর্ত লঙ্ঘন করেছে।

-বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like