সংশোধন না হলে বহিষ্কার: কাদের

obaidul_quaderজাতীয় ডেস্ক : সংশোধিত না হলে দল থেকে বহিষ্কার করা হবে বলে অপকর্ম সংগঠনকারী নেতা-কর্মীদের সতর্ক করে দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

শুক্রবার রাজধানীর ধানমণ্ডিতে দলীয় সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে স্বেচ্ছাসেবক লীগের যৌথ সভা শেষে সাংবাদিকদের সামনে এ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন তিনি।

কাদের বলেন, “যারা অপকর্ম করে তাদের সংশোধন হতে হবে। যারা সংশোধন হবে না তাদের দল থেকে বের করে দিতে হবে। প্রথমে সংশোধন করবো; যারা সংশোধন হবে না তাদের দল থেকে বহিষ্কার করা হবে।”

দেশে ‘সাম্প্রদায়িক উগ্রবাদী গোষ্ঠীর’ বিপদ এখনো কাটেনি মন্তব্য করে নেতাকর্মীদের সতর্ক থাকার পরামর্শ দেন ওবায়দুল কাদের।

আশকোনার জঙ্গি আস্তানায় ‘সাহসী অভিযান সফলভাবে’ শেষ হয়েছে মন্তব্য করে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, “এ রকম আরও কত আশকোনা আছে এটা এই মুহূর্তে বলা যায় না। কারণ, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ এখন একটা গ্লোবাল ফেনোমেনন।

“তারা কখন কোথায় হানা দেবে, তাদের ডালপালা আজকে বিস্তারিত হয়ে আছে। আমাদের সতর্ক থাকতে হবে, সাবধান থাকতে হবে। আত্মসন্তুষ্ট হওয়ার কোনো কারণ নেই।”

বিমানে যান্ত্রিক ত্রুটির ঘটনাকে ‘শেখ হাসিনাকে হত্যার ২০তম চেষ্টা’ হিসেবে বর্ণনা করে কাদের বলেন, “একটা মহল বঙ্গবন্ধুর মতো শেখ হাসিনাকেও সরিয়ে দিতে চেষ্টা করছে।

“আমাদের যারা প্রতিপক্ষ, তারা এতদিনে বুঝতে পেরেছে নির্বাচনের মাধ্যমে শেখ হাসিনাকে পরাজিত করা, হারিয়ে দেওয়া সম্ভব নয়। বঙ্গবন্ধুকে কেন হত্যা করা হয়েছে? ওরা বুঝতে পেরেছিল ভোটে তাকে হারানো যাবে না; পরে ষড়যন্ত্র করে বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে নৃসংশভাবে হত্যা করা হয়েছে।

“আজকে আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনার যে জনপ্রিয়তা, দূরদর্শী নেতৃত্বের কারণে যতই তিনি জনপ্রিয় হয়ে উঠছেন, ততই তার শত্রু বাড়ছে; জীবন ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠছে।

শেখ হাসিনাকে ‘উন্নয়নের রোল মডেল’ অ্যাখ্যা দিয়ে ‘পার্টির চেয়েও তার উচ্চতা অনেক বেশি’ বলে মন্তব্য করেন তিনি।

৫ জানুয়ারিকে ‘গণতন্ত্র হত্যা দিবস’ হিসেবে পালন করায় বিএনপির সমালোচনা করে কাদের বলেন, মুখে গণতন্ত্রের কথা বললেও বিএনপির কাজ হচ্ছে ষড়যন্ত্র করা। গণতন্ত্র তারা চায় না, তারা চায় ষড়যন্ত্র। তারা ষড়যন্ত্রমূলকভাবে শেখ হাসিনাকে ক্ষমতা থেকে সরাতে চায়।”

-বিডিনিউজ।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like