চকরিয়ায় চোরাই মালামালের ডিপো আবিস্কার : আটক ২

chakaria-pic-3-1-17

চকরিয়া প্রতিনিধি, ০৪ জানুয়ারি: চকরিয়া পৌর এলাকায় চুরি ছিনতাই আশংকাজনক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। চোরের দল প্রতিদিন পৌর এলাকার বিভিন্ন বাসা-বাড়ি, দোকান পাট, আফিস আদালতে দিনে ও রাতের অন্ধকারে হানা দিয়ে নগদ টাকা, দামী ল্যাপটফ, মোবাইল সেট সহ বিভিন্ন মালামাল চুরি করে নিয়ে যাচ্ছে। সর্বশেষ ৩ জানুয়ারী গভীর রাতে পৌর সভার ৮ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মুজিবুল হকের চিরিংগা বায়তুশ শরফ রোডস্থ অফিস চুরি হলে টনক নড়ে এলাকাবাসীর। পুলিশ ওইদিন বিকালে স্থানীয় জনতার সহায়তায় অভিযান চালিয়ে ঘটনায় জড়িত ২ চোরকে আটক করে। এসময় পালিয়ে যেতে সক্ষম হয় চোর ও চিনতাইকারীদের পশ্রয়দাতা। একটি চোরাই মালামালের ডিপো আবিস্কার করা হয়।
চকরিয়া থানার এস.আই গৌতম রায় সরকার জানান, চকরিয়া পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মুজিবুল হকের চিরিংগা বায়তুশ শরফ সড়কস্থ অফিস চুরির খবর পেয়ে অভিযান চালানো হয়। এসময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দুই চোরকে একটি দোকানের ভেতর ঘুমন্ত অবস্থায় আটক করা হয়। পরে তাদের স্বীকারোক্তি মোতাবেক লামার চিরিংগা সড়কে একটি চোরাই মালামালের ডিপো আবিস্কার করা হয়। কিন্তু এসময় ওই দোকানের মালিক চোরদের আশ্রয়দাতা পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। পরে ওই ডিপো থেকে মূল্যবান ইলেকট্রনিক সামগ্রী ও লোহা জাতীয় মালামাল জব্দ করা হয়।
আটকরা হলো- পৌর এলাকার ৪ নং ওয়ার্ডের সবুজবাগ এলাকার নুর মোহাম্মদ ভূট্রোর ছেলে মোহাম্মদ হাকিম (১৮) ও ৮ নং ওয়ার্ডের বাশঁঘাটা সড়কের মকবুল আহমদের ছেলে মো: শাহীন (১৭)।
কাউন্সিলর মুজিবুল হক জানান, গভীর রাতে চুরের দল তার তালাবদ্ব অফিসে হানা দিয়ে দরজার গ্রীল কেটে ভিতরে ঢুকে অফিসে রক্ষিত নগদ ২ লাখ ৩০ হাজার টাকা, দামী মালামাল ও প্রয়োজনীয় কাগজ পত্র নিয়ে যায়।
আটক হাকিম ও শাহীন জানান, তারা স্থানীয় ভাংগারী (স্ক্রাপ) দোকানদার জিয়াবুল হকের আশ্রয়ে পৌর শহরের বাসা বাড়ি, দোকান পাট, ও অফিস আদালত থেকে মুল্যবান মালামাল সামগ্রী চুরি করে তার দোকানে বিক্রি করত।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like