স্মৃতিশক্তি উন্নত করতে এই খাবারগুলো এড়িয়ে চলুন

falling-asleep-on-books

স্বাস্থ্য ডেস্ক :   সুস্থ মানে শুধুমাত্র শারীরিক সুস্থতাই নয়। একজন ব্যক্তি তখনই পুরোপুরি সুস্থ হন, যখন তিনি শারীরিক এবং মানসিক উভয় দিক থেকেই সুস্থ থাকেন। কিন্তু প্রচন্ড ব্যস্ততার মাঝে আমরা শারীরিক সুস্থতার দিকে নজর দিতে দিতে আমাদের মানসিক সুস্থতার দিকে নজরই দেওয়ার মতো সময় থাকে না।

মানসিক সুস্থতার দিকে নজর রাখা খুবই জরুরি। তার কারণ আমাদের মস্তিষ্ক সুস্থ থাকলে তবেই আমাদের শরীর সুস্থ থাকবে। অনেক সময়েই দেখা যায়, আমরা অনেক কিছু ভুলে যাই। বিশেষ কিছু মনে রাখতে পারি না। কেন ভুলে যাই আমরা? এই ভুলে যাওয়া প্রতিরোধের উপায়ই বা কী? চিকিত্‌সকেরা বলছেন, এমন কিছু খাবার রয়েছে, যা খেলে আমাদের স্মৃতিশক্তি অনুন্নত হয়। তাহলে স্মৃতিশক্তি ভালো রাখতে কী কী খাবার খাবেন না জেনে নিন-

 ১) সামুদ্রিক খাবারে প্রচুর পরিমানে পারদ থাকে। একটি সমীক্ষা থেকে দেখা গিয়েছে যে, যে সমস্ত মানুষ প্রচুর পরিমানে সামুদ্রিক মাছ যেমন, টুনা বা অন্যান্য যেকোনও সামুদ্রিক মাছ প্রতি সপ্তাহে কিংবা নিয়মিত খান, তাঁদের স্মৃতিশক্তি অন্যদের তুলনায় কম উন্নত।

২) প্রচুর পরিমানে ট্রান্স ফ্যাট জাতীয় খাবার খেলে তা আমাদের স্মৃতিশক্তিকে দুর্বল করে দেয়। এই ট্রান্স ফ্যাট মার্জারিন, স্ন্যাকস ফুড কিংবা যেকোনও প্যাকেট বেকড খাবারে থাকে। তাই স্মৃতিশক্তি বাড়াতে এই ট্রান্স ফ্যাট জাতীয় খাবার এড়িয়ে চলুন।

৩) মিষ্টি জাতীয় খাবার অতিরিক্ত পরিমানে খেলেও তা আমাদের মনে রাখার ক্ষমতায় বাধা হয়ে দাঁড়ায়।

৪) নোনতা খাবার এড়িয়ে চলুন। নোনতা খাবারে সোডিয়াম থাকে। যা আমাদের স্মৃতিশক্তি দুর্বল করে এবং চিন্তাশক্তিকেও দুর্বল করে দেয়।

৫) পিত্‌জা, পাস্তায় যে সমস্ত চিজ বা স্যাট্যুরেটেড ফ্যাট থাকে, তাও আমাদের স্মৃতিশক্তিকে দুর্বল করে দেয়।

-জি নিউস

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like