শিল্প ও বাণিজ্য মেলায় লটারী, জুয়া ও অশ্লিলতা বন্ধে জেলা প্রশাসকের সাথে সাক্ষাৎ

jasad-coxs-pic-14-12সংবাদ বিজ্ঞপ্তি, ১৫ ডিসেম্বর: কক্সবাজার শিল্প ও বাণিজ্য মেলার নামে লটারীর টিকেট বিক্রির অনুমোদন, জুয়া ও অশ্লিলতা বন্ধের দাবীতে জেলা প্রশাসক মো. আলী হোসেন এর সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন জেলা জাসদ নেতৃবৃন্দ, মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতিনিধি, দোকান মালিক সমিতি ফেডারেশনের সভাপতি, কক্সবাজার সোসাইটির নেতৃবৃন্দরা। বৃহস্পতিবার বেলা ১১ টায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে এ সাক্ষাৎ করেন।
শিল্প ও বাণিজ্য মেলার নামে লটারীর টিকেট বিক্রির অনুমোদন কোন অবস্থাতেই দেওয়া হবে না বলে ঘোষণা দেওয়ায় জেলা প্রশাসককে প্রতিনিধি দলের নেতৃবৃন্দরা আন্তরিক অভিনন্দন ও কৃতজ্ঞা জানান।
নেতৃবৃন্দরা জেলা প্রশাসককে বলেন, অসামাজিক কর্মকান্ড ব্যতিত সুষ্ঠু ধারার ও নীতি নৈতিকতা পূর্ণ যে কোন ধরনের
মেলা ও উৎসবের সমর্থন করি। মেলার নাম দিয়ে লটারী বিক্রয়, সাবান খেলা, গুটি খেলা, পুতুল নাছ ও ভেরাইটি শো এর নামে অশ্লিলতার চরম বিরোধীতা করছি। এ ধরনের কর্মকান্ড সংঘঠিত হলেই মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের সর্বস্থরের জনগোষ্ঠিকে সাথে নিয়ে দুর্বার আন্দোলন সংগ্রামের কর্মসূচী ঘোষণা করা হবে।
প্রতিনিধি দলের নেতৃবৃন্দকে জেলা প্রশাসক বলেন- কোন অবস্থাতেই এ ধরনের কোন কর্মকান্ড শিল্প ও বাণিজ্য মেলা প্রাঙ্গনের ভিতরে ও বাহিরে লটারী বিক্রয়ের প্রক্রিয়া চালানো যাবে না। অশ্লিল নাচ গান ও জুয়া খেলাও হবে না। এ সমস্থ অপকর্ম কেহ ঘটালে তাৎক্ষনিক প্রশাসনিক কঠোর আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে। প্রয়োজনে মেলা বন্ধ করে দেয়া হবে।
প্রতিনিধি দলের নেতৃত্বে ছিলেন- জেলা জাসদের সভাপতি নইমুল হক চৌধুরী টুটুল, সাধারণ সম্পাদক এড. আবুল কালাম আজাদ, যুগ্ম সম্পাদক এড. রফিক উদ্দিন চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা ও সাবেক জেলা কমান্ডার মোহাম্মদ আলী, সাবেক ডেপুটি কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা আবদুস সালাম, কক্সবাজার দোকান মালিক সমিতি ফেডারেশনের সভাপতি মোস্তাক আহমদ, কক্সবাজার সোসাইটির সভাপতি কমরেড গিয়াস উদ্দিন, কক্সবাজার শহর জাসদের সভাপতি মোহাম্মদ হোসেন মাসু, জাসদ নেতা আবদুর রশিদ, মোশারফ হোসেন, প্রদীপ দাশসহ প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like