‘দিপিকার সাথে কাটানো প্রতিটি মুহূর্তই অসাধারণ’

dipika-disel-4

বিনোদন ডেস্ক: বলিউডের স্বপ্নকন্যা দিপিকা পাড়ুকোন মাতাতে চলেছে হলিউডের রূপালি পর্দা। এ খবর তো পুরনো। নতুন খবর হলো অ্যাকশান ছবি ‘ট্রিপল এক্স: রিটার্ন অব জ্যান্ডার কেইজ’ দিয়ে হলিউডে অভিষিক্ত দিপিকার প্রশংসায় পঞ্চমুখ তার সহঅভিনেতা ভিন ডিসেল। এ জুটির আবেদনময় পর্দা রসায়ন দর্শকের নজড় কেড়েছিলো আগেই। এবারে দিপিকার সাথে কাজের রোমাঞ্চকর অভিজ্ঞতার কথা গণমাধ্যমকে জানালেন এ অভিনেতা।

সিএনএন নিউজ এইটটিন’কে দেয়া এক সাক্ষাতকারে ডিসেল বলেন, দিপিকার মাঝে আন্তজার্তিক তারকাখ্যাতি পাওয়ার মতো সব গুনাগুণই দেখতে পেয়েছেন তিনি। দিপিকার সাথে কাজের অভিজ্ঞতাকে এক কথায় অসাধরণ বলেই মন্তব্য করেছেন এ তারকা! সাক্ষাতকারে ডিসেল বলেন, “দিপিকাকে আমার অনেক ভালো লেগেছে। তার সাখে কাজ করে আমি খুবই আনন্দিত। আমাদের পর্দা রসায়ন ছিলো একবারেই সহজ ও স্বাবলিল। কোনো কৃত্রিমতা ছিলো না এতে। দিপিকার সাথে কাজের অভিজ্ঞতা ছিলো এক কথায় অসাধারণ।”

এক ভিডিও বার্তায় দিপিকার উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করতে দেখা গেছে এ তারকাকে। ভিডিওটিতে ডিসেল বলেন, “দিপিকার প্রতি আমার ভালোবাসার কথা বলে শেষ করা যাবে না! তার সাথে কাটানো প্রতিটি মুহুর্তই অসাধারণ। আমি নিজেকে খুবই ভাগ্যবান মনে করছি, কারণ তার মতো একজন অসাধারণ অভিনেত্রীর সাথে আমি জুটি বেঁধে অভিনয়ের সুযোগ পেয়েছি! দিপিকা আগামি দিনের বড় তারকা হতে যাচ্ছে।”

দিপিকার সাথে প্রথম সাক্ষাতের স্মৃতিচারণা করতে গিয়ে ডিসেল বলেন, “ ‘ফাস্ট অ্যান্ড ফিউরিয়াস-সাত’ এর জন্য অডিশন দিতে গিয়েছিলো দিপিকা। টেস্ট চলাকালিন সময়ে আমাদের ক্যামেরা-রসায়ন দেখে উপস্থিত সবাই মুগ্ধ হয়েছিলো! দিপিকার অভিব্যক্তিও সবাইকে বিশ্মিত করে দিয়েছিলো।”

দিপিকার সাথে অভিনয়ের সময় কোন দৃশ্যটির কথা বেশি মনে পড়বে?-এমন প্রশ্নের জবাবে ডিসেল বলেন, “পানির সামনে খুব সুন্দর একটি দৃশ্যে আমরা অভিনয় করেছি। এ দৃশ্যটি গোটা সিনেমায় আমার সবচেয়ে প্রিয় দৃশ্য।” ছবিটির তৃতীয় কিস্তির শুটিং চলাকালে এ দৃশ্যটি ধারণ করা হয়েছিলো বলে জানান তিনি।

‘ট্রিপল এক্স’ ফ্র্যাঞ্চাইজির প্রথম ছবি ‘ট্রিপল এক্স’ মুক্তি পেয়েছিলো ২০০২ সালে। এরপর ২০১৫-তে মুক্তি পেয়েছিলো দ্বিতীয় কিস্তি ‘ট্রিপল এক্স: স্টেট অব দ্য ইউনিয়ন’। এ ফ্যাঞ্চাইজির তৃতীয় ছবি ‘ট্রিপল এক্স: রিটার্ন অব জ্যান্ডার কেইজ’ মুক্তি পেতে যাচ্ছে ২০১৭ সালের ২০ জানুয়ারি।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like