জনতা ব্যাংকের দুই ডিজিএম কারাগারে

dudok

আইন-আদালত ডেস্ক: বিসমিল্লাহ গ্রুপের আলোচিত ঋণ জালিয়াতি মামলায় গ্রেপ্তার জনতা ব্যাংকের দুই উপ মহাব্যবস্থাপককে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। ঢাকার মহানগর হাকিম সাজ্জাদুর রহমান বৃহস্পতিবার দুদকের রিমান্ড ও আসামিদের জামিন আবেদন নাকচ করে এই আদেশ দেন।

এই দুই আসামি হলেন- মতিঝিলে জনতা ব্যাংকের করপোরেট শাখার উপ মহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম) আজমুল হক এবং এস এম আবু হেনা মোস্তফা কামাল।

বৃহস্পতিবার দুপুরে মতিঝিলে জনতা ব্যাংকের কার্যালয়ে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করে দুদক।

পরে তাদের হাকিম আদালতে হাজির করে তিন দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা। অন‌্যদিকে দুই ব‌্যাংকারের পক্ষে করা হয় জামিন আবেদন।

বিচারক দুই আবেদনই নাকচ করে তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন বলে দুদকের প্রসিকিউশন বিভাগের কর্মকর্তা সহিদুর রহমান জানান।

একাধিক ব্যাংক থেকে ১ হাজার ২০০ কোটি টাকা ঋণ জালিয়াতি, মুদ্রা পাচার ও দুর্নীতির অভিযোগে ২০১৩ সালের ৩ নভেম্বর বিসমিল্লাহ গ্রুপের চেয়ারম্যান নওরিন হাসিব, ব্যবস্থাপনা পরিচালক খাজা সোলায়মান চৌধুরীসহ ৫৪ জনের বিরুদ্ধে এক ডজন মামলা করে দুদক।

দুদক পরিচালক ইকবাল হোসেন রাজধানীর রমনা, মতিঝিল ও নিউ মার্কেট থানায় এসব মামলা করেন। তদন্ত শেষে ২০১৫ সালের বিভিন্ন সময়ে আদালতে অভিযোগপত্র দেওয়া হয়।

৫৪ আসামির মধ্যে বিসমিল্লাহ গ্রুপের চেয়ারম্যান, ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ ১৩ জনকে সবগুলো মামলাতেই আসামি। বাকিদের মধ‌্যে জনতা ব্যাংকের ১২ জন, প্রাইম ব্যাংকের নয়জন, প্রিমিয়ার ব্যাংকের সাতজন, যমুনা ব্যাংকের পাঁচজন এবং শাহজালাল ইসলামী ব্যাংকের আট কর্মকর্তা রয়েছেন।

এসব মামলার মধ‌্যে জনতা ব্যাংক থেকে বিসমিল্লাহ গ্রুপের মোট ৩৩২ কোটি ৯১ লাখ টাকা আত্মসাতের দুটি মামলায় আজমুল হক ও এস এম আবু হেনা মোস্তফা কামাল আসামি।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like