‘পাকিস্তানের উচিত ভারতকে ধন্যবাদ জানানো’

adnan-sami

বিনোদন ডেস্ক: কণ্ঠশিল্পী আদনান সামি মনে করেন, সন্ত্রাসী নিধনের জন্য পাকিস্তানের ধন্যবাদ পাওয়া উচিত ভারতের। সম্প্রতি কাশ্মির সীমান্তে ভারতের সাঁড়াশি অভিযানের প্রশংসা করে আলোচনার জন্ম দিয়েছেন পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত এই ভারতীয় গায়ক।

পাকিস্তানে সাঁড়াশি অভিযানের পর টুইটারে এক বার্তায় আদনান সামি লিখেছিলেন, “সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে একটি অসাধারণ, সফল, সুদক্ষ এবং কৌশলী আঘাতের জন্য ভারতের প্রধানমন্ত্রীকে এবং আমাদের আর্মড ফোর্স বাহিনীকে অনেক শুভেচ্ছা।” এই মন্তব্যের পর নানান দিক থেকে সমালোচনার ঝড় ওঠে।

মঙ্গলবার এই ব্যাপারে আবারও মুখ খোলেন সামি।

মুম্বাইয়ে একটি অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে এই ব্যাপারে তিনি বলেন, “আমার টুইটগুলো দুই দেশের শত্রুদের জন্যই ছিল। এরা আমাদের দেশ এবং বিশ্বকে ক্ষতির মুখে ফেলেছে। পাকিস্তানের উচিত ভারতকে এর (সন্ত্রাসীদের বিরূদ্ধে অভিযান) জন্য ধন্যবাদ জানানো।”

তিনি আরও বলেন,  “শুরু থেকেই পাকিস্তান বলছে তারাও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে। এখন তাদের প্রতিবেশী তাদের সাহায্য করছে,  আর তারা এটাকে স্বীকারই করছেন না!”

তবে তার উদ্দেশ্য পাকিস্তানকে ছোট করা নয় বলেও জানান, “আমি কখনই পাকিস্তানের বিপক্ষে কথা বলিনি। তারা নিজেদের মতো করে ব্যাপারটাকে এভাবে ধরে নিয়েছে। এজন্যই তারা ভাবছে যে আমি পাকিস্তান এবং সন্ত্রাসীদের এক কাতারে ফেলেছি!”

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ভূয়সী প্রশংসাও করেন এই গায়ক।

তিনি বলেন, “ আমার মনে হয় অভিযানের সময়ে প্রধানমন্ত্রী দারুণ ভূমিকা রেখেছেন। তার উপরে অনেক চাপ থাকা সত্ত্বেও ব্যাপারটি ভালোভাবেই সামলেছেন। আমি তাকে নিয়ে গর্বিত,  এই ব্যাপারে টুইটারে তাকে অভিনন্দনও জানিয়েছি। আমি ভাবিনি আমার টুইট এতটা আলোচিত হবে।”

এতকিছুর পরও পাকিস্তানে ফিরে যেতে ভয় পান না বলেই জানালেন ‘তেরি ইয়াদে’ খ্যাত এই গায়ব।

তিনি বলেন,  “আমি আল্লাহ ছাড়া কাওকে ভয় পাই না। যদি আমার ভাগ্যে লেখা থাকে যে আমি সেখানে ফেরত যাব, তাহলে আমি যাবই। আমি সেখানে ফিরে যেতে ভয় পাইনা।”

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like