ঠিকাদার হত্যায় ৫ জনের মৃত্যুদণ্ড

Gazipur--04-September-2016-

আইন-আদালত ডেস্ক: গাজীপুরে ঠিকাদার আবু সাঈদ হত‌্যা মামলায় পাঁচজনকে মৃত্যুদণ্ড এবং একজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। গাজীপুর জেলা ও দায়রা জজ একেএম এনামুল হক রোববার আট বছর আগের এ মামলার রায় ঘোষণা করেন।

ফাঁসির আসামিরা হলেন- জয়দেবপুরের ধীরাশ্রম এলাকার শাহদত আলীর ছেলে ইয়াকুব আলী (৩৫), চান মিয়ার ছেলে দেলোয়ার হোসেন ওরফে দেলু (৩৬), ইউনুছ আলীর ছেলে মো. হান্নান ওরফে হান্নু (৩৬) মো. বেদন মিয়ার ছেলে ইকবাল হোসেন (৩৩) ও বাদশা মিয়ার ছেলে মো. মনির হোসেন (৩৩)।

আর স্থানীয় বাচ্চু মিয়ার ছেলে মাসুদ ওরফে মাইছ্যাকে (২৬) যাবজ্জীবন সাজা দিয়েছে আদালত।

ছয় আসামির প্রত‌্যেককে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানাও করা হয়েছে রায়ে।

আসামিদের মধ‌্যে কেবল দেলোয়ার হোসেন ওরফে দেলু রায় ঘোষণার সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন; বাকিরা পলাতক।

এ আদালতের পিপি মো. হারিছ উদ্দিন আহমদ জানান, ধীরাশ্রম এলাকার নুরুল ইসলাম ওরফে নুরু মিয়ার ছেলে আবু সাইদ মাটি সরবরাহের ঠিকাদারি করতেন।

‘পূর্ব শত্রুতার জের ধরে’ আসামিরা ২০০৮ সালের ১৭ জুন রাতে সাইদকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে মারধরের পর শ্বাসরোধে হত্যা করে।

পরে তার লাশ ধীরাশ্রম রেলওয়ে স্টেশনের লাইনের পাশে ফেলে চলে যায় খুনিরা। স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে পরদিন পুলিশ লাশ উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় সাইদের বাবা নুরু মিয়া ১৮ জুন জয়দেবপুর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

তদন্ত শেষে ২০০৯ সালের ৭ সেপ্টেম্বর ছয় জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ।

বাদীপক্ষে ১৩ জনের সাক্ষ‌্য শুনে আদালত রোববার আসামিদের দোষী সাব‌্যস্ত করে সাজার আদেশ দেয়।

সাইদের বাবা নুরু মিয়া রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করে দ্রুত আসামিদের সাজা কার্যকরের দাবি জানিয়েছেন।

প্রসিকিউশনের পক্ষে এই মামলা পরিচালনা করেন পিপি হারিছ উদ্দিন আহমেদ। আসামিপক্ষে ছিলেন মো. হুমায়ুন কবির, লাবিব উদ্দিন ও সালেহ উদ্দিন রিপন।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like