পর্নোগ্রাফি না দেখার আহ্বান হলিউড অভিনেত্রী পামেলার

pamela+anderson+reuters

বিনোদন ডেস্ক : পর্নোগ্রাফির বিরুদ্ধে সোচ্চার হলেন সাবেক প্লেবয় মডেল এবং ‘বেওয়াচ’ সিরিজ খ্যাত হলিউড অভিনেত্রী পামেলা অ্যান্ডারসন।

মার্কিন-ইহুদি লেখক মুলে বোটিচের সঙ্গে ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের জন্য লেখা ‘টেক দ্য প্লেজ : নো মোর ইনডালজিং পর্নো’ শীর্ষক একটি নিবন্ধে তিনি পাঠকদের পর্নোগ্রাফি না দেখার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন।

৪৯ বছর বয়সি পামেলা মনে করেন যারা পর্নো দেখে তারা ‘অক্ষম ব্যক্তি।’

পামেলা লিখেছেন, ‘আমাদের ছেলেমেয়েদের অবশ্যই এই বিষয়টি বোঝাতে হবে যে, পর্নোগ্রাফি অক্ষম ব্যক্তিদের জন্য। এটি খুবই বিরক্তিকর, প্রচুর সময়ের অপচয় হয়। এটি ওই সব অক্ষম ব্যক্তিদের  জন্য যারা স্বাস্থ্যকর যৌনতার প্রাচুর্য্যপূর্ণ সুফল ভোগে অক্ষম। তারা এতটাই অলস, স্বাভাবিক যৌনতার জন্য যে প্রচুর পরিমাণ পরিশ্রম করতে হয় এবং ত্যাগ স্বীকার করতে হয় তারা তাও করতে চায় না।’

পর্নোগ্রাফির বিরুদ্ধে সোচ্চার এই তারকা যুক্তি দেখান, ‘পর্নোগ্রাফি মানুষের মনের ওপর প্রভাব ফেলে এবং একজন কার্যক্ষম স্বামী হিসেবে এবং বাবা হওয়ার ব্যাপারে তাকে অক্ষম করে তোলে।’

নিবন্ধে সাবেক মার্কিন রাজনীতিবিদ অ্যান্থনি ওয়েইনার এর যৌন কেলেঙ্কারির ঘটনাটিও তুলে ধরেন পামেলা। এর পরিপ্রেক্ষিতে নিবন্ধটি তিনি লেখেন, ‘যদি পর্নোগ্রাফির ধ্বংসাত্মক ফলাফল নিয়ে এখনো কারো সংশয় থাকে তারা অ্যান্থনি ওয়েইনার এবং হুমা আবেদিনের ঘটনাটি চেয়ে দেখতে পারেন।’

নব্বইয়ের দশকে পামেলার দুটি সেক্স টেপও ফাঁস হয়েছিল। প্রথমটি ফাঁস হয় ১৯৯৫ সালে সাবেক স্বামী টমি লির সঙ্গে। আর দ্বিতীয়টি ছিল বর্তমান স্বামী ব্রেট মিখায়েলের সঙ্গে।

নিবন্ধটিতে তিনি আরো লেখেন, ‘আর কত পরিবার কষ্ট ভোগ করবে? কত দাম্পত্য জীবন ধ্বংস হবে? সামান্য একটু উত্তেজনার জন্য কত মেধাবী মানুষ তার সম্পর্ক এবং ক্যারিয়ার ধ্বংস করবে?’

খুব শিগগিরই ডোয়াইন জনসন, প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার সঙ্গে বেওয়াচ সিনেমাতে দেখা যাবে পামেলাকে। এছাড়া প্লেবয় ম্যাগাজিনের শেষ প্রচ্ছদের মডেল হয়েছেন পামেলা অ্যান্ডারসন। মোট ১৫ বার এ ম্যাগাজিনের প্রচ্ছদের জন্য পোজ দিয়েছেন তিনি।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like