চার নারী জেএমবির একজন ঢামেক চিকিৎসক

Rab1471338433জাতীয় ডেস্ক : রাজধানীর বিভিন্ন স্থান ও গাজীপুর থেকে নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন জেএমবির চার নারী সদস্যকে আটক করে র‌্যাব। এই চারজনের মধ্যে ঐশী নামে একজন ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের চিকিৎসক।

মঙ্গলবার দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাব কর্মকর্তারা এ তথ্য জানান।

র‌্যাব-৪-এর অধিনায়ক লুৎফুল কবির জানান, ২১ জুলাই গাজীপুর থেকে জেএমবির দক্ষিণাঞ্চলের আমির মো. মাহমুদুল হাসানকে গ্রেপ্তার করা হয়। তিনি জানান, আকলীমা নামে এক নারী সদস্য তাদের হয়ে অন্য নারীদের দাওয়াত দেন। পরে আকলীমাকে নজরদারিতে রাখা হয়।

গত রোববার দিবাগত রাত ২টার দিকে গাজীপুরের সাইনবোর্ড এলাকার নিজ বাসা থেকে গ্রেপ্তার করা হয় আকলীমাকে। তার মোবাইল ফোনে জঙ্গিবাদ ও জিহাদসংক্রান্ত তথ্য পাওয়া যায়। তিনি দেড় বছর ধরে জিহাদ কার্যক্রমে সম্পৃক্ত বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছেন।

তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে সোমবার সকালে মগবাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে ঐশীকে গ্রেপ্তার করা হয়। তার মোবাইল ফোন ও ল্যাপটপে জিহাদসংক্রান্ত তথ্যাদি পাওয়া যায়।

ঐশী জানান, মৌ ও মেঘলা নামে আরো দুই নারী সদস্য তাদের সঙ্গে কাজ করেন। পরে মিরপুর-১ এর জনতা হাউজিং এলাকায় অভিযান চালিয়ে সোমবার রাত সোয়া ৯টার দিকে মৌকে এবং রাত ১০টার দিকে একই এলাকায় অভিযান চালিয়ে মেঘলাতে আটক করা হয়।

র‌্যাব জানায়, ওই দুজনের কাছ থেকেও জিহাদসংক্রান্ত বইপত্র পাওয়া গেছে। মৌ সাত মাস ধরে জিহাদ কার্যক্রম চালিয়ে আসছিলেন।

র‌্যাব আরো জানায়,  আকলীমা নারী জেএমবি দলের একজন উপদেষ্টা। ঐশী ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ইন্টার্ন চিকিৎসক। তারা সবাই ইয়ানত (চাঁদা) সংগ্রহের পাশাপাশি দাওয়াতের কাজ করেন।

এ ছাড়া নারী ইউনিটের সব গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেন আকলীমা ও ঐশী। আকলীমা বেসরকারি ‘মানারাত ইউনিভার্সিটিতে’ পড়াশোনা করেন।

-রাইজিংবিডি

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like