ইয়াবা প্রসব করলেন ইমাম!

Yaba-Photo-SM20160815022851বাংলানিউজ : অবশেষে টানা ৪ ঘণ্টা চেষ্টার পর ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ওষুধ মিশ্রিত পানি খেয়ে ইয়াবা প্রসব করলেন কক্সবাজার থেকে আগত সেই প্লেন যাত্রী ইমাম হোসেন।

রোববার (১৪ আগস্ট) বিকেলে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) কড়া পাহারায় ইমাম হোসেনকে ঢামেকে ভর্তি করেন শুল্ক গোয়েন্দা কর্মকর্তারা।

সেখানে সহকারী অধ্যাপক এজেডএম মাহফুজুর রহমানের নেতৃত্বে, সহকারী রেজিস্টার ডা. শেখর কুমার বসুর তত্ত্বাবধানে ইমাম হোসেনের চিকিৎসা চলে।

রাতে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতরের মহাপরিচালক ড. মইনুল খান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে দুপুর পৌনে ১টায় ইমাম হোসেনকে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে আটক করে শুল্ক গোয়েন্দা কর্মকর্তারা। সে কক্সবাজার থেকে নভো এয়ারের ভিকিউ ৯৩২ প্লেন যোগে বিমানবন্দরে আসে।

ড. মইনুল খান জানান, বিকেলে ইমাম হোসেনকে এক্স-রে করা হয়। এক্স-রে রিপোর্টে পাকস্থলিতে লাল স্কসটেপ দিয়ে মোড়ানো ইয়াবা ট্যাবলেটের অস্তিত্ব পায় চিকিৎসক।

প্রাথমিকভাবে ১ লিটার পানিতে অ্যাকুয়ালেক্স পাউডার মিশ্রিত করে তা ২০ মিনিট ধরে খাইয়ে বের করার চেষ্টা করতে বলা হয়। এতে কিছুটা ফলও আসে।

ওষুধ খাওয়ানোর কিছুক্ষণ পর আটক ইমাম হোসেন পায়ুপথে দু’দফায় ২০টি পোটলা বের করেন। প্রতি পোটলায় ৪০টি করে ৮০০ পিস ইয়াবা পাওয়া গেছে।

তিনি আরো জানান, বর্তমানে ইমাম হোসেন হাসপাতাল বেডে নিরাপত্তা প্রহরায় বিশ্রাম নিচ্ছেন। ওষুধের মাধ্যমে বাকি ৮০ পোটলা বের করার চেষ্টা করছেন চিকিৎসকরা।

বের না হলে অপারেশন করে তা বের করা হবে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। ইমাম হোসেন নিজেই স্বীকার করেছেন, তার পেটে ১০০ পোটলা ইয়াবা রয়েছেন।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like