‘কোমেন’এ কুঁড়িয়ে পাওয়া শিশু আসমা বেড়ে উঠছে পরম মমতায়

asmaul hosna pic-1

                                                                   শিশু আসমাউল হোসনা

চকরিয়া প্রতিনিধি, কক্সবাজারটাইমসডটকম, ০৯ আগস্ট: ঘুর্ণিঝড় ‘কোমেন’এ কক্সবাজারের চকরিয়ায় কুঁড়িয়ে পাওয়া শিশু আসমাউল হোসনা বেড়ে উঠছে পরম মমতায়। কুঁড়িয়ে পাওয়া এই শিশুটি বেড়ে উঠছে একটি কৃষক পরিবারে। স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘স্বাধীন মঞ্চ’ ও পথশিশুদের সংগঠন ‘পীস্ ফাউন্ডার’ও যৌথভাবে দেখভাল করছেন এ শিশুর। তারাই পরম মমতায় বেড়ে উঠতে সাহায্য করছেন শিশুটিকে। যা একটি বিরল দৃষ্টান্ত হিসেবেই প্রতিষ্ঠিত হয়েছে সমাজে।

‘স্বাধীন মঞ্চ’ সংগঠক তানভীর আহমদ সিদ্দিকী তুহিন জানান, আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাস ছিল ২০১৫ সালের ২৯ জুলাই কক্সবাজার ও চট্টগ্রাম উপকূলে ঘুর্ণিঝড় ‘কোমেন’ আঘাত হানবে। এই খবরে মানুষ ভীতসন্ত্রস্থ হয়ে নিরাপদে আশ্রয় নেন। পরদিন ৩০ জুলাই ভোরে চকরিয়ার পালাকাটায় নবী স্টোরের সামনে থেকে আসছিল শিশুর কান্না। তাৎক্ষণিক জটলা বেধে যায় সেখানে। এক পর্যায়ে স্থানীয় কৃষক নাছির উদ্দিন শিশুটিকে পরম মমতায় কোলে তুলে নেন। সেই শিশুটিই আমাদের আসমাউল হোসনা। অনেকে আসমাকে আদর করে ‘কোমেন’ নামেও ডাকে।

তিনি জানান, ‘পীস্ ফাউন্ডার’ ও ‘স্বাধীন মঞ্চ’ পরিবারের কল্যাণে আসমার বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বেশ আলোচিত হয়। এর পর গণমাধ্যমে আসমাকে নিয়ে খবর পরিবেশন করলে চারিদিক থেকে সাড়া আসে। অনেকে আসমার জন্য আর্থিক সহায়তার হাতও বাড়িয়ে দেন। কৃষক পরিবারেই আসমা এখন সকলের ভালবাসায় বেড়ে উঠছে। আসমার মধ্য দিয়ে আমাদের সমাজের সুবিধা বঞ্চিত এবং পথ শিশুদের ভালবাসতে শেখায়।

‘পীস্ ফাউন্ডার’ এর পরিচালক আদনান রামীম জানান, আমাদের সমাজে শিশুরা প্রতিনিয়ত অবহেলিত। সেক্ষেত্রে জন্মের প্রথমদিনই ফেলে যাওয়া শিশুকে চকরিয়া পৌরসভার সাত নম্বর ওয়ার্ডের পালাকাটাস্থ কালাচাঁদ পাড়ার কৃষক নাছির উদ্দিন পরম মমতায় কোলে তুলে নিয়ে মানবতার দৃষ্টান্ত দেখিয়েছেন। কৃষক নাছির উদ্দিনের বাড়িতেই বড় হচ্ছে আসমাউল হোসনা। আসমাউল হোসনার পাশে থাকতে পেরে বেশ পুলকিত আমরাও।

রামীম আরো জানান, আসমাকে নিয়ে গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশের পর আসমার তহবিলে জমা পড়ে প্রায় ৩০ হাজার টাকা। এক বছরের মধ্যে আসমাকে চারবার বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের কাছেও নিয়ে যাওয়া হয়। বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হওয়ার পর যথাযথ চিকিৎসাও দেওয়া হয় আসমাকে।

কৃষক নাছির উদ্দিন জানান, ‘আমাার স্ত্রী মর্জিনা বেগম একটি কন্যা সন্তানের আশায় একে একে জন্ম দেন চার পুত্র সন্তান। তবে সৃষ্টিকর্তা আমাদের দীর্ঘদিনের সেই লালিত স্বপ্ন পূর্ণ হয় সেই দিন কুঁড়িয়ে পাওয়া সদ্যজাত আসমাউল হোসনার মধ্য দিয়ে। আমার স্ত্রী সহ পরিবারের সকলের স্নেহ ভালবাসাই হচ্ছে আসমাউল হোসনা। সংগঠন ‘স্বাধীন মঞ্চ’ ও ‘পীস ফাউন্ডার’ এর পক্ষ থেকে আমাদের আসমার চিকিৎসা সহ খোঁজখবর রাখেন।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like