বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটিতে চট্টগ্রামের ২১ নেতা

রাজনীতি ডেস্ক : বিএনপির ঘোষিত ৬০২ জনের কেন্দ্রীয় কমিটিতে অতীত রেকর্ড ভেঙে চট্টগ্রাম থেকে ২১ নেতাকে পদ দিয়েছেন দলটির চেয়ারপার্সন। দলের সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম থেকে শুরু করে নির্বাহি সদস্য পর্যন্ত সব পদের নেতাই রয়েছে চট্টগ্রাম থেকে।

বিএনপি সূত্র মতে, বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা ও নগর বিএনপির সভাপতির দায়িত্ব পালন করে আসা সাবেক মন্ত্রী আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীকে বসানো হয়েছে ১৯ সদস্য বিশিষ্ট দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য পদে। যেটি দলটির সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ও মর্যাদকর পদ হিসেবে বিবেচিত।

এরপরের গুরুত্বপূূর্ণ পদ হিসেবে বিবেচিত দলের ভাইস চেয়ারম্যান পদে দায়িত্ব পেয়েছেন সাবেক পররাষ্ট্র মন্ত্রী এম মোরশেদ খান, আবদুল্লাহ আল নোমান, মীর মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন ও গিয়াস উদ্দিন কাদের চৌধুরী। এদের মধ্যে মোরশেদ খান ও নোমান স্বপদে বহাল থাকলেও মীর নাছির আগের কমিটিতে চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা আর গিয়াস কাদের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন।

একই পদ মর্যাদার ৭৩ সদস্যের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য হয়েছেন বিগত কমিটির তথ্য ও যোগাযোগ বিষয়ক সম্পাদক ও সাবেক হুইপ  সৈয়দ ওয়াহিদুল আলম, সাবেক চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম আকবর খোন্দকার, সাবেক কোষাধ্যক্ষ এস.এম.ফজলুল হক ও সাবেক শিশু বিষয়ক সম্পাদিকা বেগম রোজি কবির।

যুগ্ম মহাসচিব হিসেবে গত ৯ এপ্রিল ঘোষণা করা হয়েছে লায়ন আসলাম চৌধুরীর নাম। যদিও মোসাদের সঙ্গে হাত মিলিয়ে দেশ বিরোধী ষড়যন্ত্রের অভিযোগে রাষ্ট্রদ্রোহের মামলায় গ্রেপ্তার হয়ে জেল হাজতে আছেন এই ব্যবসায়ী বিএনপি নেতা। যার বিরুদ্ধে ঋণ খেলাপী ও নাশকতা অভিযোগসহ ২০টির অধিক মামলা রয়েছে।

সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়িত্ব পেয়েছেন নোয়াখালীর বাসিন্দা তবে চট্টগ্রামের রাজনীতিক ও সাবেক চাকসুর এজিএস মাহবুবুর রহমান শামীম। যদিও গত এপ্রিলে তাকে নগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেনের সহকারী হিসেবে বিভাগীয় সহ সাংগঠনিক সম্পাদক করা হয়েছিল। এক নেতার এক পদের কারণে ডা. শাহাদাত সাংগঠনিক সম্পাদকের পদ ছাড়ার কারণে শামীমকে পদোন্নতি দেওয়া হয়।

শ্রম বিষয়ক সম্পাদক পদে এম.নাজিম উদ্দিন স্বপদে এবারও বহাল রয়েছেন। আর বিএনপির মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা পদে স্বপদে বহাল আছেন ফটিকছড়ির বেগম নুরী আরা ছাফাও।

এছাড়া বিএনপি’র জাতীয় নির্বাহী কমিটিতে সদস্য পদে দায়িত্ব পেয়েছেন, গত কমিটির সদস্য ও আনোয়ারার সাবেক সাংসদ সরওয়ার জামাল নিজাম, দক্ষিণ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক গাজী শাহজাহান জুয়েল, সন্দ্বীপের সাবেক এমপি মোস্তফা কামাল পাশা, চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপি’র সাবেক সহ-সভাপতি শামসুল আলম, উত্তর জেলা বিএনপির সাবেক সহ সভাপতি মিরশ্বরাইয়ের প্রফেসর কামাল উদ্দিন চৌধুরী, সাবেক বিচারপতি ফয়সাল মাহমুদ ফায়েজি, শ্রমিক দলের আনোয়ার হোসেইন, মীর নাছিরের ছেলে ব্যারিস্টার মীর হেলাল উদ্দীন, যুদ্ধiপরাধের দায়ে ফাঁসির রায়ে দণ্ডিত সাবেক স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরীর ছোট ছেলে হুম্মাম কাদের চৌধুরী।

এদিকে গত ছয় বছর আগের নগর বিএনপির চার সদস্যের কমিটি ভেঙে দিয়ে তিন সদস্যের আংশিক কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। এতে ডা. শাহাদাত হোসেনকে সভাপতি, আবু সুফিয়ানকে সিনিয়র সহ সভাপতি ও আবুল হাশেম বক্করকে সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব দিয়ে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের দায়িত্ব দিয়েছেন দলের চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া।

-বাংলামেইল২৪ডটকম

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like