‘আইসিটি খাতে অর্জন খারাপ নয়’

PHOTO-(11)-BG20160719230523

নিউজ ডেস্ক:  অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত বলেছেন, গত ২০ বছরে তথ্য ও প্রযুক্তি (আইসিটি) খাতে যে অর্জন হয়েছে তা খারাপ নয়। বর্তমানে যে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রয়েছে, তা এই আইসিটির মাধ্যমেই আরো এগিয়ে যাবে।

রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরা’র  (আইসিসিবি) গুলনকশা মিলনায়তনে মঙ্গলবার (১৯ জুলাই) রাতে আয়োজিত এক আড়ম্বপূর্ণ ‘অভিষেক’ অনুষ্ঠানে তিনি  এসব কথা বলেন।

বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফট্ওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিস (বেসসি) এর নব নির্বাচিত কার্যনির্বাহী পরিষদকে দায়িত্ব তুলে দিতে  এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে  সংগঠনটি।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে অর্থমন্ত্রী বলেন, আমাদের সরকার উন্নয়ন কিভাবে হয়, তা  নিয়েই চিন্তিত। উন্নয়নই আমাদের সবচেয়ে বড় লক্ষ্য। আমরা যখন লক্ষ্য নির্ধারণ করি, তখনই বুঝতে পারি এই যে নতুন প্রযুক্তি এটাকে যদি এখনই গ্রহণ না করি তবে উন্নয়নের সুযোগ কমে যাবে।

তিনি বলেন, সভ্যতার ইতিহাসে কোনো কোনো সময় একটা বিশেষ পণ্য সভ্যতাকে বিশেষভাবে এগিয়ে নিয়ে গেছে। যেমন গত শতাব্দীর শুরুর দিকে পেট্রোলিয়াম  ও টেলিফোন আবিস্কার অনেক উন্নয়ন ঘটিয়েছে, তেমনি বর্তমানে যেটি অবদান রাখছে, সেটি হল তথ্য প্রযুক্তি। এটি ছাড়া কোনো উন্নয়ন সম্ভব নয়।

আবুল মাল আব্দুল মুহিত বলেন, আইসিটি খাতকে তরুণরাই এগিয়ে নিয়ে গেছে। তাদের উপদেশ, প্রযুক্তিগত প্রয়োজনে  সরকার সাড়া দেওয়ার চেষ্টা করেছে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম বলেন, বেসিস আইসিটি খাতে সরকারের সমান অবদান রেখেছে। এখাতে কাজ করার অনেক সুযোগ রয়েছে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় যে কোনো প্রয়োজনে সহায়তা করবে।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, প্রধানমন্ত্রী আইসিটি উপদেষ্টার নেতৃত্বে আইসিটি খাত অনেক এগিয়ে গেছে। ২০২১ সালের মধ্যে আমরা ৫ বিলিয়ন ডলার মূল্যের প্রযুক্তি পণ্য রপ্তানি করার লক্ষ্য নিয়ে কাজ করছি। এছাড়া এ সময়ের মধ্যে জিডিপিতে ৫ শতাংশ অবদান রাখা এবং ২০ লাখ মানব সম্পদ গড়ে তোলার লক্ষ নিয়েও কাজ করছি।

এর আগে নবনির্বাচিত কার্যনির্বাহী কমিটিকে শপথ পাঠ করান বেসিসের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও নির্বাচন আপিল বোর্ডের চেয়ারম্যান এ তৌহিদ।

এরপর সংগঠনের বিদায়ী সভাপতি শামীম আহসান নব নির্বাচিত সভাপতি মোস্তফা জব্বারের হাতে বেসিসের পতাকা ও কার্যক্রমের প্রতিবেদন তুলে দেন। এছাড়া নতুন কার্যনির্বাহী পরিষদকে ফুল দিয়ে বরণ করেন বিদায়ী সদস্যরা।

শপথ গ্রহণের মাধ্যমে মোস্তফা জব্বারের নেতৃত্বাধীন নতুন পরিষদ ২০১৬ থেকে ২০১৯ পর্যন্ত মেয়াদে দায়িত্বভার কাঁধে নিলেন।

অনুষ্ঠানে বেসিসের সকল সাবেক সভাপতিদের বিশেষ সংবর্ধনা দেওয়া হয়। এ সময় অন্যদের মধ্যে বেসিসের নব নির্বাচিত জ্যেষ্ঠ  সহ-সভাপতি রাসেল টি আহমেদ, সহ- সভাপতি এম রাশিদুল হাসান, পরিচালক উত্তম কুমার পাল, মোস্তাফিজুর রহমান সোহেলসহ বিদায়ী ও বর্তমান নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

গত ২৫ জুন সংগঠনটির কার্যনির্বাহী পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

-বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like