দেশে বিচারাধীন মামলার সংখ্যা ৩১ লাখ ৯ হাজার ৯৬৭

নিউজ ডেস্ক : ২০১৬ সালের ৩১ মার্চ পর্যন্ত দেশে মোট ৩১ লাখ ৯ হাজার ৯৬৭টি মামলা বিচারাধীন আছে বলে সংসদে জানিয়েছেন আইন, বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক।

রোববার (১৭ জুলাই) জাতীয় সংসদে প্রশ্নোত্তরকালে পটুয়াখালী ৩ আসনের সংসদ সদস্য আ খ শ জাহাঙ্গীর হোসাইনের এক লিখিত প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য জানান।

মন্ত্রীর দেয়া তথ্য মতে, এর মধ্যে আপিল বিভাগে বিচারাধীন মামলার সংখ্যা ১২ হাজার ৭৯২টি এবং হাই কোর্ট বিভাগে ৩ লাখ ৯৯ হাজার ৩০৩টি, এছাড়া জেলা পর্যায়ে সহকারী জজ আদালত হতে জেলা ও দায়রা জজ আদালতসহ সব ট্রাইব্যুনালে বিচারাধীন মামলার সংখ্যা ১৮ লাখ ৯ হাজার ৪৬১টি এবং জুডিসিয়াল ম্যাজিট্রেট আদালতে (সিএমএম/ সিজেএম) আদালতগুলো বিচারাধীন মামলার সংখ্যা ৮ লাখ ৮৮ হাজার ৪১১টি।

মন্ত্রী জানান, সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে মাননীয় প্রধান বিচারপতিসহ মোট ৯ জন বিচারপতি এবং হাই কোর্ট বিভাগে ৯১ জন বিচারপতি কর্মরত আছেন।

এছাড়া জেলা ও দায়রা জজ/ সমপর্যায়ের বিচারকদের মোট পদ ২২১টি, বর্তমানে কর্মরত আছেন ২০৬ জন, শুন্যপদ ১৫টি।

তিনি জানান, অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা/ সমপর্যায়ের বিচারকদের মোট পদ ২১০টি, যার মধ্যে বর্তমানে কর্মরত আছেন ২০৯ জন, শুন্যপদ ১টি।

আবার যুগ্ম জেলা ও দায়রা/ সমপর্যায়ের বিচারকের মোট পদ ৩০৪টি, বর্তমানে কর্মরত আছেন ২৮৮ জন, শুন্য পদ ১৬টি। মন্ত্রী দেয়া তথ্যানুযায়ী সহকারী জজ/ সিনিয়র সহকারী জজের মোট পদ ৩৬১টি, কর্মরত আছেন ২৯৭ জন, শুন্য পদ আছে ৬৪টি। আবার জুডিসিয়াল ম্যাজিট্রেট/ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিট্রেটের পদসংখ্যা ৪৭৮টি। কর্মরত আছেন ২৯৮ জন। শুন্য পদ ১৮০টি এবং মেট্রোপলিটন ম্যাজিট্রেটের পদ ৫১টি হলেও বর্তমানে সেখানে কর্মরত আছেন ৪৬ জন, শুন্যপদ আছে ৫টি বলে জানিয়েছেন আনিসুল হক।

তিনি বলেন, মামলার জট কমাতে বিচারক নিয়োগ, অগ্রাধিকার ভিত্তিতে মামলা নিষ্পত্তি, প্রতিটি জেলায় কেস ম্যানেজমেন্ট কমিটি গঠন, ডিজিটাল কজলিস্ট চালু, আর্থিক অসচ্ছল ব্যক্তিদের সরকারী খরচে আইনগত সহায়তা দেয়াসহ নানাবিধ কার্যক্রম চালু করা হয়েছে। আশা করি, দ্রুত এসব মামলার নিষ্পত্তি হবে।

-বাংলামেইল২৪ডটকম

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like