ম্যাচসেরা হয়ে যা বললেন সাকিব

Shakib_Al_Hasan_011468658053ক্রীড়া ডেস্ক : ক্যারিবিয়ান লিগের প্রথম চার ম্যাচে নিজেকে মেলে ধরতে পারছিলেন না সাকিব আল হাসান। জ্যামাইকা তালাওয়াসের জার্সিতে প্রথম চার ম্যাচে দুই ইনিংসে সাকিবের রান ছিল ৩২ ও উইকেট ছিল ২টি।

একমাত্র বাংলাদেশি ক্রিকেটার হিসেবে সিপিএলে অংশ নেওয়ায় সাকিবে চোখ ছিল পুরো বাংলাদেশের। শুরুতে ভালো করতে না পারলেও নিজের পঞ্চম ম্যাচে সাকিব ঠিকই ভক্ত ও ক্রিকেটপ্রেমিদের স্বাদ মিটিয়েছেন। দলকে জয়ের স্বাদও দিয়েছেন। পাশাপাশি ম্যাচসেরার পুরস্কারও পেয়েছেন।

প্রথমে বল হাতে ১ উইকেট, পরে ব্যাট হাতে ৪৭ বলে অপরাজিত ৫৪। বিশ্বের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার সাকিবের পারফরম্যান্সে জ্যামাইকা ৫ উইকেটে হারায় গায়ানা আমাজন ওয়ারিয়র্সকে।

গায়ানার ১২৯ রানের জবাবে ব্যাটিংয়ে নেমে ২ রানে ৪ উইকেট হারায় জ্যামাইকা। সেখান থেকে সাকিব আন্দ্রে রাসেল ও গেইলকে সাথে নিয়ে দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন। সাকিবের ৫৪ রানের সঙ্গে ৪৫ রান করেন গেইল। রাসেল করেন ২৪ রান।

ম্যাচ সেরার পুরস্কার নিয়ে সাকিব নিজের ব্যাটিং পরিকল্পনা নিয়ে বলেন, ‘ইনিংসের শুরুতে দ্রুত চারটি উইকেট হারানো একদমই ঠিক হয়নি। এতে আমাদের উপর চাপ পড়ে যায়। তবে আমার বিশ্বাস ছিল যদি ক্রিজে থাকতে পারে তাহলে পরবর্তীতে ব্যাটিং করা সহজ হয়ে যাবে। আমরা সেই পরিকল্পনাতেই পরবর্তীতে এগুতে থাকি।’

আন্দ্রে রাসেল দ্রুত ২৪ রানে ফিরে যাবার পর ক্রিস গেইল মাঠে নামেন। ব্যাটিং দানব ২৯ বলে ৪ ছয় ২ চারে ৪৫ রানে অপরাজিত থাকেন। দ্রুত রান তোলায় সাকিবের উপর চাপ কিছুটা হলেও কমে আসে।

ম্যাচ সেরা সাকিব গেইলের প্রশংসা করে বলেন,‘সিপিএলের এবারের আসরে গেইল অসাধারণ খেলছে। প্রতিটি ম্যাচেই সে আমাদের হয়ে রান করছে। এখন পর্যন্ত আমাদের সফর খুব ভালো যাচ্ছে। রাসেলও আজ ভালো খেলেছে। তার রানগুলো গুরুত্বপূর্ণ ছিল। আমরা চাপে ছিলাম কিন্তু আমরা চাপ ধীরে ধীরে জয় করেছি।’

নিজের সাফল্যের থেকে দলগত সাফল্যকে বড় করে দেখছেন সাকিব। এক প্রশ্নের জবাবে সাকিব বলেন, ‘এটি আমাদের দলীয় সাফল্য। যে ধরণের উইকেটে খেলা হয়েছে সেখানে আমাদের বোলাররা সত্যিই দারুণ করেছে। ব্যাটসম্যানদের দায়িত্ব ছিল ম্যাচটি জেতানোর। আমরা শেষ পর্যন্ত সে কাজটাই করেছি।’
-রাইজিংবিডি

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like