জঙ্গিদের ভিডিও পোস্ট, লাইক, শেয়ার করলে মামলা

2016_07_06_17_57_19_kSqdkLBcTMXSVr7EQoKIdDUGUzc7zi_original

নিউজ ডেস্ক:  ফেসবুক, টুইটার, ইউটিউবসহ সামাজিক যোগাযোগের সব মাধ্যমে আইএস কিংবা জঙ্গিবাদ সমর্থনে কোনো ধরনের ভিডিও, ছবি, কোনো বার্তা আপলোড, শেয়ার, কমেন্ট অথবা লাইক দিলে ব্যবহারকারীর বিরুদ্ধে তথ্য প্রযুক্তি আইনে (আইসিটি) মামলা করা হবে।

বুধবার (৬ জুন) বিকেলে পুলিশের সদরদপ্তর থেকে গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

গুলশানে আর্টিসান রেস্টুরেন্টে হামলার পর ফের হুমকি দিয়ে ভিডিও প্রকাশ করেছে নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন আইএস। এই ভিডিওতে তিন বাঙালি যুবককে ‘হুমকি বার্তা’ দিতে দেখা গেছে। এসব ভিডিও খুব দ্রুতই ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে। এর ‘বিরূপ প্রভাব’ পড়তে পারে মনে করেই এ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হল বলে মনে করা হচ্ছে।

বুধবার সকালে বিতর্কিত ওয়েবসাইট ‘সাইটে’ প্রকাশের পর পুলিশ হেড কোয়াটারের ডিআইজি (মিডিয়া) একেএম শহিদুর রহমান স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এসম্পর্কে জানতে চাইলে মোবাইল ফোনে শহিদুর বলেন, ‘কোনো জঙ্গি সংগঠনের ভিডিও, ছবি বা পোস্ট সামাজিক যোগযোগ মাধ্যমে পোস্ট, শেয়ার বা লাইক দিলে তার বিরুদ্ধে আইনত ব্যবস্থা নেয়া হবে।’ এ বিষয়ে ইতোমধ্যে নজরদারি শুরু হয়েছে বলেও জানান তিনি।

প্রকাশিত ছবির মাধ্যমে অনেককেই ‘চিহ্নিত’ করা সম্ভব হয়েছে -এমন প্রসঙ্গ তুললে তিনি বলেন, ‘ছবি বা এ সম্পর্কিত কিছু শেয়ার করা যাবে, তবে তা যেন কোনোভাবেই জঙ্গিবাদ সমর্থনে না হয়।’

প্রসঙ্গত, ঢাকার কূটনীতিকপাড়া গুলশানের হলি আর্টিসান রেস্টুরেন্টে শুক্রবার (১ জুলাই) রাত পৌনে ৯টার দিকে একদল সসস্ত্র জঙ্গি ঢুকে দেশি-বিদেশি অতিথিদের জিম্মি করে। প্রায় ১২ ঘণ্টা পর শনিবার সকালে সেনাবাহিনীর নেতৃত্বে কমান্ডো অভিযানের মধ্য দিয়ে রেস্টুরেন্টটি নিয়ন্ত্রণ নেয় নিরাপত্তা বাহিনী।

অভিযানে ১৩ জন জিম্মিকে জীবিত উদ্ধার এবং ২০ জনের জবাই করা মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহতদের মধ্যে ১৭ জনই বিদেশি। বাকিরা বাংলাদেশি।

এ ছাড়া জঙ্গিদের প্রতিহত করতে গিয়ে নিহত হন গোয়েন্দা পুলিশের সহকারী কমিশনার (এসি) রবিউল করিম ও বনানী থানার ওসি সালাহউদ্দিন খান।

-বাংলামেইল২৪ডটকম

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like