একাদশে ভর্তির প্রথম অপেক্ষমাণ তালিকা প্রকাশ

akadashনিউজ ডেস্ক: ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির জন্য প্রথম অপেক্ষমাণ তালিকা প্রকাশ করেছে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব-কমিটি। প্রথম অপেক্ষমাণ তালিকায় ৭ লাখ ১৮ হাজার ৯২২ জন স্থান পেয়েছে।

ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের জ্যেষ্ঠ সিস্টেম অ্যানালিস্ট মনজুরুল কবীর শুক্রবার বিকেলে বলেন, বিকেল ৫টায় কলেজে ভর্তির ওয়েবসাইটে (http://xiclassadmission.gov.bd) তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। আবেদনকারীরা অনলাইনে তাদের রোল, বোর্ড, পাসের সন ও রেজিস্ট্রেশন নম্বর দিয়ে ফল দেখতে পারবেন।

এ ছাড়া আবেদনকৃত প্রতিটি কলেজে মেধাতালিকায় অথবা অপেক্ষমাণ তালিকার ফলাফল পাওয়া যাবে। কলেজের নোটিশ বোর্ডেও ফল দেখতে পারবেন শিক্ষার্থীরা।

অপেক্ষমাণ তালিকা থেকে ২৫ থেকে ২৭ জুনের মধ্যে শূন্য আসনে ভর্তি করানো হবে। শিক্ষার্থীদের ভর্তি নিশ্চিতকরণ সঙ্গে সঙ্গেই করতে হবে বলে ওই ওয়েবসাইটে জানানো হয়েছে। এরপর ২৮ জুন দ্বিতীয় অপেক্ষমাণ মেধাক্রম প্রকাশ করা হবে।

ঢাকা শিক্ষা বোর্ড সূত্রে জানা গেছে, ভর্তির ক্ষেত্রে দুর্নীতি ঠেকাতেই অপেক্ষমাণ তালিকারও মেধাক্রম তৈরি করেছে কর্তৃপক্ষ।

কোনো শিক্ষার্থী যদি মেধাক্রম অনুযায়ী ভর্তি হয়েও থাকে, সেও অপেক্ষমাণ তালিকা থেকে মেধাক্রম অনুযায়ী (শূন্য আসনের বিপরীতে) ভর্তির সুযোগ পাবে। সে ক্ষেত্রে তাকে যে কলেজে ভর্তি হয়েছে, তা বাতিল করতে হবে।

নিয়মিত ও অপেক্ষমাণ তালিকা থেকে ভর্তির পরও বিলম্ব ফিসহ ভর্তি হওয়া যাবে ১০ থেকে ২০ জুলাই পর্যন্ত। এবার একাদশ শ্রেণিতে ক্লাস শুরু হবে ১০ জুলাই থেকে।

গত ১৬ জুন ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির জন্য নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের তালিকা প্রকাশ করা হয়েছিল।

জানা গেছে, মেধাক্রমে থেকেও ভর্তি না হওয়া প্রায় ৩ লাখ শিক্ষার্থীও অপেক্ষমাণ তালিকার মেধাক্রম অনুযায়ী ভর্তি হবে।

এবার একজন শিক্ষার্থী যে কয়েকটি কলেজে ভর্তির জন্য আবেদন করেছিল, সেগুলোর প্রতিটির জন্যই আলাদা মেধাক্রম করা হয়েছে। এজন্য অনেক শিক্ষার্থী ভালো ফল করেও অপেক্ষমাণ তালিকায় পড়েছে কিংবা প্রথম দফায় প্রত্যাশিত কলেজে ভর্তির জন্য মনোনীত হয়নি। এজন্যই প্রথম মেধাক্রমে থাকা অনেক শিক্ষার্থী ভর্তি হয়নি।

-রাইজিংবিডি

 

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like