উষ্ণ পানীয় পানে হতে পারে ক্যান্সার

স্বাস্থ্য ডেস্ক : চা-কফির মত উষ্ণ পানীয় পান করলে ক্যান্সারের ঝুঁকি রয়েছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ। ধারণা করা হচ্ছে, পানীয়ের উপাদান নয় বরং তাপমাত্রাই মুখের ও গলার ক্যান্সারের জন্য দায়ী।

এএফপির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, উষ্ণ পানীয়র তাপমাত্রা যদি ৬৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের বেশি হয় তাহলে এই ঝুঁকি সবচেয়ে বেশি।

আন্তর্জাতিক ক্যান্সার গবেষণা সংস্থা উষ্ণ পানীয়ের সাথে ক্যন্সারের এই যোগাযোগ ঘোষণা করার আগে কফি ও ক্যান্সার নিয়ে কমপক্ষে এক হাজারেরও বেশি বৈজ্ঞানিক গবেষণা পর্যালোচনা করেছে।

ক্যান্সার গবেষণা সংস্থার পরিচালক ক্রিস্টোফার ওয়াইল্ড বলেছেন, ‘গবেষণার ফলাফল বলছে, উষ্ণ পানীয় পান মুখের ক্যান্সারের একটি সাম্ভাব্য কারণ। পানীয় নয়, বরং পানীয়ের তাপমাত্রাই এর জন্য দায়ী।’

সংস্থার একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন, ‘চীন, ইরান, তুরস্ক, দক্ষিণ আমেরিকার দেশগুলোতে সাধারণত ঐতিহ্যগতভাবেই অতিরিক্ত উষ্ণ (৭০ ডিগ্রীর উপরে) চা পান করা হয়। গবেষণায় দেখা গেছে ঐ অঞ্চলগুলোতে গলা ও মুখের ক্যান্সারের ঝুঁকি বেশি।’

এই গবেষণার ফলাফলের প্রতিক্রিয়ায় যুক্তরাজ্যের ক্যান্সার গবেষণা কেন্দ্রের অফিসার কেসি ডানলপ বলেছেন, ‘যুক্তরাজ্যের বেশিরভাগ মানুষ এই গবেষণায় উল্লেখিত ঝুঁকিপূর্ণ উষ্ণ তাপমাত্রায় পানীয় পান করে না। যদিও মধ্যপ্রাচ্য ও অন্যান্য দেশে করে। উষ্ণ পানীয় পানে যে খাদ্য নালীর ক্যান্সার হয় তার কিছু প্রমাণ পাওয়া গেছে।’

বিশ্ব সাস্থ্য সংস্থার এই সংক্রান্ত বেশ কিছু ঘোষণা দিয়েছে ইতিমধ্যে। ১৯৯১ সালে আন্তর্জাতিক ক্যান্সার গবেষণা সংস্থার একটি গবেষণায় বলা হয়েছিল কফি খেলে ক্যান্সার হয়। যদিও পরবর্তীতে কফির সাথে ক্যান্সারের জড়িত থাকার কোন প্রমাণ পাওয়া যায়নি। কিন্তু এবার দেখা যাচ্ছে, উচ্চ তাপমাত্রার চা-কফি ক্যান্সারের একটা কারণ হতে পারে।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like