বুখারি হাদিস ৪৯৭

bukhari-sharif-coxsbazartimesহাদিস ৪৯৭

আব্দুল্লাহইবন মাসলামা (র.)…….ইবন শিহাব (র.) থেকে বর্ণিত,উমর ই্বন আবদুল আযীয (র.) একদিন কোন এক সালাত আদায়ে বিলম্ব করলেন। তখন উরওয়া ইব্ন যুবাইর (রা.) তাঁর কাছে গেলেন এবং তাঁর কাছে বর্ণনা করলেন যে, ইরাকে অবস্বানকালে মুগীরা ইব্ন শু’বা (রা.) একনিন এক সালাত আদায়ে বিলম্ব করেছিলেন। ফলে আবু মাসঊন আনসারী (রা.) তাঁর নিকট গিয়ে বললেন, হে মুগীরা ! একি ? তুমি কি অবগত নও যে, জিব্রাঈল (আ.) অবতরন করে সালাত আদায় করলেন, আর রাসূলুল্লাহ(সা.) ও সালাত আদায় করলেন। আবার তিনি সালাত আদায় করলেন। রাসূলুল্লাহ(সা.) ও সালাত আদায় করলেন। পুনরায় তিনি সালাত আদায় করলেন এবং রাসূলুল্লাহ(সা.) ও সালাত আদায় করলেন। আবার তিনি সালাত আদায় করলেন। রাসূলুল্লাহ(সা.) ও সালাত আদায় করলেন। পুনরায় তিনি সালাত আদায় করলেন এবং রাসূলুল্লাহ(সা.) ও সালাত আদায় করলেন। তারপর জিব্রাঈল (আ.) বললেন, এরই জন্য আমি আদিষ্ট হয়েছি। উমর (ইব্ন আবদুল আযীয) (র.) উরওয়া (র.)- কে বললেন, “তুমি যা রিওয়ায়াত করছ তা একটু ভেবে দেখ। জিব্রাঈলই (আ.) কি রাসূলুল্লাহ(সা.) এর জন্য সালাতের ওয়াক্ত নিধারন করে দিয়েছিলেন ?” উরওয়া (র.) বলেনঃ অবশ্য আয়িশা (রা.) আমার কাছে বর্ননা করেছেন যে, রাসূলুল্লাহ (সা.) এমন মুহূর্তে আসরের সালাত আদায় করতেন যে, সূর্যরশ্মি তখনও তাঁর হুজরার মধ্যে বিরাজমান থাকত। তবে তা উপরের দিকে উঠে যাওয়ার আগেই।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like