জিয়ার মৃত্যুবার্ষিকীতে বিএনপির ১৫ দিনের কর্মসূচি

2016_05_15_13_34_48_INCoT7CRTCVug701BYSCbZm945zd4c_original

রাজনীতি ডেস্ক :  বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৩৫তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে ১৫ দিনব্যাপী কর্মসূচি ঘোষণা করেছে দলটি। আগামী ২০ মে থেকে ৩ জুন পর্যন্ত বিএনপি ও এর অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনগুলো এ কর্মসূচি পালন করবে।

কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে-আলোচনা সভা, দুঃস্থদের মাঝে খাবার বিতরণ, দলীয় পতাকা অর্ধনমিতকরণ ও কালো পতাকা উত্তোলন, কালো ব্যাজ ধারণ, স্বেচ্ছায় রক্তদান, ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প, জিয়াউর রহমানের মাজার জিয়ারত, পোস্টার ও সংবাদপত্র ও অনলাইনে ক্রোড়পত্র প্রকাশ, রচনা প্রতিযোগিতা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, দোয়া ও মিলাদ মাহফিল।

রোববার দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক যৌথসভা শেষে দলের সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

আগামী ৩০ মে জিয়াউর রহমানের ৩৫তম মৃত্যুবার্ষিকী যথাযথভাবে পালন ও কর্মসূচি নির্ধারণের লক্ষ্যে এ যৌথসভার আয়োজন করে বিএনপি। দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এতে সভাপতিত্ব করেন।

কর্মসূচি অনুযায়ী, আগামী ৩১ মে রাজধানীর রমনার ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে আলোচনা সভা করবে বিএনপি।

৩০ মে ভোর ৬টায় নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দলীয় পতাকা অর্ধনমিতকরণ ও কালোপতাকা উত্তোলন করা হবে।

এরপর সকাল ১০টায় বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া দলের সিনিয়র নেতাদের নিয়ে রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে জিয়াউর রহমানের মাজারে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও ফাতেহা পাঠ করবেন। এরপর জাতীয়তাবাদী ওলামা দলের উদ্যোগে মাজার প্রাঙ্গণে দোয়া মাহফিল এবং ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ড্যাব) উদ্যোগে স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচি পালিত হবে।

এছাড়া একইদিন সকাল থেকে নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচতলায় ড্যাবের উদ্যোগে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প ও বিনামূল্যে ওষুধ বিতরণ কর্মসূচি পালিত হবে।

ঢাকা মহানগর বিএনপির উদ্যোগে ৩০ মে থেকে ১ জুন পর্যন্ত তিন দিনব্যাপী রাজধানীর বিভিন্ন স্পটে দুঃস্থদের মাঝে খাবার বিতরণ করবেন দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া।

জিয়ার মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বিএনপির অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনগুলোও রাজধানীতে আলোচনা সভা করবে।
আগামি ২ জুন জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দল, ২৮ মে মুক্তিযোদ্ধা দল, ২৭ মে স্বেচ্ছাসেবক দল, ২৬ মে মহিলা দল ও ২৪ মে যুবদল আলোচনা সভা করবে। তবে এসব আলোচনা সভার স্থান এখনো নির্ধারিত হয়নি।
ছাত্রদলের উদ্যোগে পোস্টার প্রকাশ, আলোচনা সভা ও আলোকচিত্র প্রদর্শনীর কর্মসূচি পালিত হবে।

এছাড়া জাতায়তাবাদী সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংস্থার (জাসাস) উদ্যোগে ভাব-গম্ভীর পরিবেশে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে। তবে দিনক্ষণ এখনো নির্ধারণ করা হয়নি।

এদিকে, জিয়াউর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বিএনপির জেলা ও মহানগরী কার্যালয়সমূহে ৩০ মে দলীয় পতাকা অর্ধনমিত করণ ও কালো পতাকা উত্তোলন এবং দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া তারা সুবিধামতো সময়ে আলোচনা সভা করবে।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন-বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, বিলকিস জাহান শিরিন, শামা ওবায়েদ, ডা. সাখাওয়াত হাসান জীবন, অর্থনৈতিক বিষয়ক সম্পাদক আব্দুস সালাম, মহানগরের যুগ্ম আহ্বায়ক কাজী আবুল বাশার, যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক আ ক ম মোজাম্মেল হক, ওলামা দলের সভাপতি হাফেজ আব্দুল মালেক, মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদিকা শিরিন সুলতানা, ছাত্রদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি মামুনুর রশিদ মামুন, প্রথম যুগ্ম-সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ, স্বেচ্ছাসেবক দলের দপ্তর সম্পাদক আক্তারুজ্জামান বাচ্চু প্রমুখ। শেষ মুহূর্তে যৌথসভায় অংশ নেন ছাত্রদলের সভাপতি রাজীব আহসান।

-বাংলামেইল২৪ডটকম

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like