বিশ্ব সেরাদের সমস্যার নাম মুস্তাফিজ

Mustafizur-Rahman-inner20160507175924

ক্রীড়া ডেস্ক:  আইপিএলের নবম আসর মাতানো হাতে গোনা কয়েকজন বিশ্বসেরা ক্রিকেট তারকার মাঝে অন্যতম বাংলাদেশি পেসার মুস্তাফিজুর রহমান। বিশ্ব গণমাধ্যমের সঙ্গে মুস্তাফিজে ‘বুঁদ’ হয়ে আছেন ভারতের দলপতি মহেন্দ্র সিং ধোনির মতো সংযুক্ত আরব আমিরাতের দলপতি আমজাদ জাভেদ।

‘গালফ নিউজ’ এর প্রধান ক্রিকেট লেখিয়ে কে আর নায়ার মুস্তাফিজকে নিয়ে স্পেশাল ফিচার লিখেছেন, `মুস্তাফিজুর : অ্যা স্পিডস্টার উইথ দ্য ফিজ`- এই শিরোনামে। আর্টিকেলে ধোনি ও আমজাদের উক্তি দিয়ে মুস্তাফিজকে নিয়ে একটি কলামও দেওয়া হয়েছে। সেখানেও উঠে এসেছে ২০ বছর বয়সী মুস্তাফিজ বন্দনা।

কে আর নায়ার মুস্তাফিজকে নিয়ে সেখানে লিখেছেন, ‘মুস্তাফিজের বয়স যখন ১৮, তখনই আমি তাকে কাছ থেকে দেখেছি। বাংলাদেশ জাতীয় দলের হয়ে অভিষেক হওয়ারও এক বছর আগের ঘটনা সেটি। ২০১৪ সালে সে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের আসরে আমিরাতের মাটিতে খেলতে এসেছিল। একটি ম্যাচে সে তিন উইকেট শিকারের স্পেল করে। আমি তখনই তাকে দেখেছি সম্ভাবনাময় এক ক্রিকেটার হিসেবে।’

তিনি জানান, গত বছর এপ্রিলে ঢাকায় মুস্তাফিজের অভিষেক হয় টি-টোয়েন্টি ফরমেটের মধ্যদিয়ে। পাকিস্তানের বিপক্ষে অভিষেক ম্যাচেই সে শহীদ আফ্রিদি আর মোহাম্মদ হাফিজের মতো ব্যাটসম্যানের উইকেট তুলে নেয়। বাংলাদেশ সে ম্যাচে সাত উইকেটে জয় পায়। এরপর থেকে আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি মুস্তাফিজকে। আন্তর্জাতিক অভিষেক ম্যাচেই সে জানান দেয় আগামীর পারফর্ম।

মুস্তাফিজের প্রসঙ্গে তিনি যোগ করেন, গত বছরের জুনে শক্তিশালী ব্যাটিং লাইনআপের ভারতকে একাই গুঁড়িয়ে দেয় মুস্তাফিজ। সিরিজের প্রথম ম্যাচে সে ৫০ রানের বিনিময়ে ভারতের ৫টি উইকেট তুলে নেয়, যা বিশ্বের দশম বোলার হিসেবে অভিষেক ওয়ানডেতে ৫ উইকেট নেওয়ার কৃতিত্ব ছিল। বাংলাদেশ ৭৯ রানে জয় পায়। দ্বিতীয় ওয়ানডেতে সে ভারতের ছয় ব্যাটসম্যানকে সাজঘরে ফেরায়। বাংলাদেশ জেতে ৪৩ রানের ব্যবধানে, সঙ্গে সিরিজও জিতে নেয়।

বাংলাদেশের মাটিতে গত ফেব্রুয়ারিতে অনুষ্ঠিত এশিয়া কাপের আসরে আমিরাত দলপতি আমজাদ জাভেদ টাইগার পেসার মুস্তাফিজের বিপক্ষে খেলেছিলেন। আমজাদ জাভেদের মন্তব্য দিয়ে শেষ কলামটি ছিল, মুস্তাফিজ সত্যিই কঠিন একজন বোলার। তাকে খেলা যেকোনো বিশ্বসেরা ব্যাটসম্যানের জন্যই ভয়ঙ্কর। একই ভঙ্গিতে সে কাটার আর ইয়র্কার দিতে পারে, সেটিও আবার ঘণ্টায় ১৪০ কিলোমিটার বেগে। আর তার স্লোয়ার বোঝাও বেশ কষ্টকর, যতটা না একজন ব্যাটসম্যান দ্রুতগতির বল বুঝতে পারে। বিরাট কোহলির মতো বিশ্বসেরা ব্যাটসম্যানকে বেকায়দায় ফেলা বোলার মুস্তাফিজ প্রমাণ করে সে কতটা বিশ্বসেরা বোলার। সে নিঃসন্দেহে এটা চালিয়ে যাবে।

গালফ নিউজের আর্টিকেলটিতে ভারতের ও চলমান আইপিএলের পুনের দলপতি ধোনির উক্তি দেওয়া হয়েছে। সেখানে টাইগার এই পেসারের ব্রিলিয়ান্ট বোলিং স্পেলের কথা উল্লেখ করে ধোনি জানান, ‘বাঁহাতি বোলাররা কিছুটা সুবিধা পেয়ে থাকে। কিন্তু, মুস্তাফিজ যেভাবে মিক্সড ডেলিভারি দেয় তা সত্যিই দারুণ, সেটাই গুরুত্বপূর্ণ। আর মুস্তাফিজের সাফল্যের পেছনে এই কারণগুলোই কাজ করে।’

বিশ্বের বাঘাবাঘা ব্যাটসম্যানদের ইতোমধ্যেই মুস্তাফিজের বল মোকাবেলা করার অভিজ্ঞতা হয়েছে। বাজে অভিজ্ঞতায় পড়া বিশ্বসেরা ব্যাটসম্যানদের মধ্যে রয়েছেন এবিডি ভিলিয়ার্স, ক্রিস গেইল, রোহিত শর্মা, স্টিভেন স্মিথ, কেন উইলিয়ামসন, বিরাট কোহলি, শহীদ আফ্রিদি আর শেন ওয়াটসনরা।

-বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like