ব্যানারে সাইফুর’স, সভা বর্জন আইনমন্ত্রী ও ঢাবি’র ভিসির

Saiufurs20160506134330দেশ ডেস্ক :  ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে মেধাবী শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা ও বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠান চলছে। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি আইনমন্ত্রী আনিসুল হক এবং বিশেষ অতিথি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক।

অনুষ্ঠান শুরু হলো সময়মতই। মন্ত্রী ও ঢাবির ভিসিও অনুষ্ঠানে এলেন যথাসময়েই। কিন্তু মাত্র ১৩ সেকেন্ড। হ্যাঁ, অনুষ্ঠানস্থলে পৌঁছার ১৩ সেকেন্ডের মধ্যেই সেখান থেকে দ্রুত প্রস্থান করলেন মন্ত্রী। তাকে অনুসরণ করলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য’ও।

তাদের এত দ্রুত  অনুষ্ঠান বর্জন ও প্রস্থানের কারণ কি?

কারণ ব্যানারে ছিলো অনুষ্ঠানের পৃষ্টপোষক সাইফুর’স এর নাম। ব্যানারে এই নামটি দেখেই যেন অনুষ্ঠানস্থল থেকে পালিয়ে বাঁচলেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক!

মন্ত্রীর প্রস্থান দেখে হতভম্ব বিশেষ অতিথি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যও। মন্ত্রীর পদাঙ্ক অনুসরণ করে চলে গেলেন তিনিও।

শুক্রবার (০৬ মে) বেলা সোয়া এগারোটায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সাগর-রুনি মিলনায়তনে ঘটে এই ঘটনা।

সেখানে ২০১৫ সালের প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা (পিইসি) ও জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) পরীক্ষায় সাফল্য লাভ করা ডিআরইউ’র সদস্যদের কৃতী সন্তানদের সংবর্ধনা ও বৃত্তি প্রদানের আয়োজন করা হয়।

ডিআরইউ আয়োজিত এই সংবর্ধনা ও বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানের পৃষ্টপোষকতা করে সাইফুর’স প্রাইভেট লিমিটেড। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, সাইফুর’স এর চেয়ারপার্সন শামসা আরা খান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাইফুর রহমান খান। অনুষ্ঠানের ব্যানারে তাদের নামও লেখা ছিলো।
অনুষ্ঠানে গিয়ে দেখা যায়, আইনমন্ত্রী সোয়া এগারোটায় অনুষ্ঠানস্থলে আসেন। ভেতরে প্রবেশ করে তার চোখ পড়ে ব্যানারের দিকে। তাতে সাইফুর’স নাম লেখা দেখে মাত্র ১৩ সেকেন্ডে অনুষ্ঠানস্থল ত্যাগ করেন তিনি।  ডিআরইউ সাবেক সভাপতি শাহেদ চৌধুরী, বর্তমান সভাপতি জামাল উদ্দীন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস খান, বর্তমান সাধারণ সম্পাদক রাজু আহমেদ, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সাধারণ সম্পাদক কুদ্দুস আফ্রাদসহ অন্যান্যরা চেষ্টা করেও মন্ত্রীকে ফেরাতে পারেনি। একই ভাবে ফিরে যান ঢাবির ভিসিও।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশে বর্তমানে সাইফুর’স একটি বিতর্কিত নাম। অতিরঞ্জিত বিজ্ঞাপন এবং শিক্ষার্থীদের সঙ্গে প্রতারণার কারণে ইতোমধ্যেই ‍জনমনে ব্যাপক ধিকৃত হয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।
সর্বশেষ বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরির ঘটনায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ‘ইংলিশ-এর ভুলে বাংলাদেশ ব্যাংকের ১৬০ কোটি ডলার হ্যাকারদের হাতছাড়া’-শীর্ষক একটি বিজ্ঞাপন দিয়ে ফের বিতর্কের জন্ম দেয় সাইফুর’স। তাদের এই অদ্ভূত এবং বাগাড়ম্বরপূর্ণ বিজ্ঞাপন দেখে চক্ষু চড়ক গাছ হয়েছিলো অনেকেরই। তাদের এসব বাগাড়ম্বরপূর্ণ ও প্রতারণামূলক কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার কথা বলেছিলেন শিক্ষামন্ত্রীও।

তাই ডিআরইউ এর অনুষ্ঠানে বিতর্কিত এই প্রতিষ্ঠানটির ব্যানার দেখে সেখানে আর অবস্থান করেননি আইনমন্ত্রী এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি।

পরে এ নিয়ে সাংবাদিক ও তাদের পরিবারের সদস্যদের অনেকেই সাইফুর’স এর ব্যাপারে বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখান।  শেষ পর্যন্ত প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথি ছাড়াই চলে অনুষ্ঠানটি।
সাইফুর’স এর কারণে আইনমন্ত্রী ও ঢাবির ভিসি অনুষ্ঠানস্থল ত্যাগ করায় অনুষ্ঠানস্থলে অনেক সাংবাদিক নেতাই সাইফুর’স এর বিরুদ্ধ ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

সাইফুর’স এর সমালোচনা করে ডিআরইউ এর সাবেক সভাপতি শাহেদ চৌধুরী বলেন, সাইফুর’স সাম্প্রতিক সময়ে বেশ কিছু বির্তকের জন্ম দিয়েছে। আশা করবো তারা এর থেকে ফিরে আসবেন।

-বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like