প্রধানমন্ত্রীর কঠোর বার্তা, ভোটে অনিয়ম-বিশৃঙ্খলা নয়

রাজনীতি ডেস্ক : চলমান ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে কোনো ধরনের অনিয়ম ও বিশৃঙ্খলা দেখতে চান না প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলে জানিয়েছেন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ। এ জন্যে অনিয়ম ঠেকাতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা ইসিতে পৌঁছে দিয়েছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর শেরেবাংলানগরস্থ কার্যালয়ে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী রকিবউদ্দীন আহমদের সঙ্গে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ সাক্ষাৎ করে প্রধানমন্ত্রীর এ বার্তা পৌঁছে দেন।

বৈঠক শেষে হানিফ সাংবাদিকদের বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর কঠোর নির্দেশনা রয়েছে, নির্বাচনে কোনো ধরনের অনিয়ম, ত্রুটি-বিচ্যুতি উনি দেখতে চান না। সে নির্দেশনা নির্বাচন কমিশনকে দিয়েছি।’

অনিয়ম হলেই জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার কথাও জানানো হয়েছে বলে উল্লেখ করেন হানিফ।

পাশাপাশি দলীয় নেতা-কর্মীদেরও এ বিষয়ে সতর্ক করে দেয়া হবে জানিয়ে হানিফ বলেন, ‘আমরা মাঠপর্যায়ের নেতা-কর্মীদেরও নির্দেশনা দিয়ে রাখব। কোথাও কোনো অনিয়ম ও বিশৃঙ্খলার চেষ্টা করলে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

তৃতীয় ধাপের ভোটের দুই দিন আগে সিইসির সঙ্গে বৈঠক করে ক্ষমতাসীন দলটির প্রতিনিধি দল কমিশনকে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার তাগিদ দিলেন।

হানিফ জানান, বিএনপি ইউপি নির্বাচনে দলীয় প্রার্থী দিতে না পেরে বিশৃঙ্খলা করার অপচেষ্টা করছে। এ নির্বাচনকে বিতর্কিত করার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। দলটি তাদের ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে ইউপি নির্বাচনে অংশ নিয়েছে। তারা পরিকল্পিতভাবে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করছে।

এ বিষয়ে সতর্ক থাকার জন্যে ইসিকে পরামর্শ দেন তিনি। হানিফ বলেন, ‘যেখানেই অনিয়ম, বিশৃঙ্খলা সেখানেই ইসিকে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে বলেছি। আমাদের সহায়তাও থাকবে।

গত ১১ ফেব্রুয়ারি ইউপি ভোটের তফসিল ঘোষণার পর থেকে এ পর্যন্ত গোলযোগ-সহিংসতায় অন্তত ৩৫ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। গত ২২ মার্চ ও ৩১ মার্চ দুই পর্বের ভোট শেষ হয়েছে। ২৩ এপ্রিল তৃতীয় ধাপের ভোট হবে। এবার ছয় ধাপে ইউপি ভোট হচ্ছে।

-বাংলামেইল২৪

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like