২২ বছরে প্রাইম ব্যাংক

Prime-Bank--bg20160417093058

অর্থনীতি ও বাণিজ্য ডেস্ক: ব্যাংকিং সেক্টরে অতি সুনামের সঙ্গে ২২ বছরে পদার্পন করলো বেসরকারি খাতের ব্যাংক প্রাইম ব্যাংক। ২১ বছর পেরিয়ে রোববার (১৭ এপ্রিল) ২২ বছরে পদার্পন করলো এ প্রতিষ্ঠানটি।  

১৯৯৫ সালের এইদিনে মাত্র ১০কোটি টাকা পরিশোধিত মূলধন নিয়ে যাত্রা শুরু করেছিল। বর্তমানে ব্যাংকটির পরিশোধিত মূলধনের পরিমান প্রায় ১ হাজার ৩০ কোটি টাকা।

২২ বছরে পর্দাপন প্রাক্কালে শনিবার (১৬ এপ্রিল) রাজধানীর একটি হোটেলে আয়োজিত মিট দ্য প্রেস ২০১৬ তে বক্তব্য রাখেন ব্যাংকটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক আহমেদ কামাল চৌধুরী।

তিনি বলেন, আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে ছোট বড় সব ধরণের গ্রাহককে উন্নত সেবা দেওয়া। “একটি ব্যতিক্রমধর্মী ব্যাংক” স্লোগানে যাত্রা শুরুর পর থেকে নানা রকম সৃজনশীল কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে ব্যাংকিং সেক্টরে অবদান রেখে চলেছে প্রাইম ব্যাংক।

২০১৫ সালে ব্যাংকের পরিচালনা পদ্ধতিতে আমূল পরিবর্তন করা হয়েছে জানিয়ে কামাল বলেন, এবছর আমাদের স্লোগান হচ্ছে “টুআর্ডস এ স্ট্রাটেজিক রুট”।

তিনি বলেন, প্রাইম ব্যাংক রিলেশনশীপ ব্যাংকিংয়ের দিকে অগ্রসর হচ্ছে এবং বিজনেস সেন্ট্রালাইজেন করেছে। আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে ছোট বড় সবধরণের গ্রাহককে উন্নত সেবা দেওয়া।

এজন্য কর্পোরেট প্রতিষ্ঠানকে ওয়ানস্টপ সেবা দেওয়ার জন্য কর্পোরেট অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট ব্যাংকিং ও কর্মাশিয়াল ব্যাংকিং নামে দুটি বিভাগ এবং বড় গ্রাহকদের অধিকতর সেবা দেওয়ার জন্য স্পেশালাইজড রিলেশিপ ম্যানেজার তৈরি করা হয়েছে।

আহমেদ কামাল বলেন, আমরা এখন প্রোফিটেবল গ্রোথের দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করছি। এক্সটারনাল শক থেকে রক্ষা পেতে প্রয়োজনীয় রিস্ক ম্যানেজমেন্ট ব্যবস্থা প্রচলন করেছি।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে আহমেদ কামাল বলেন, ব্যাংকের খেলাপি ঋণ ৭ দশমিক ৮৬ শতাংশ, যা আগের বছরের চেয়ে একটু বেশি। বিগত সময়ে রাজনৈতিক অস্থিরতার খেলাপী ঋণ বেড়েছে।

তিনি বলেন, খেলাপির ঋণ রাইট অফ করা হলেও আদায়ের চেষ্টা কিন্তু বন্ধ হয়নি। যেমন, আমরা রাইট অফকৃত ঋণ থেকেও গত বছর ৩০ থেকে ৪০ কোটি টাকা আদায় করা হয়েছে।

তিনি বলেন, এটিএম কার্ড জালিয়াতির ঘটনায় প্রাইম ব্যাংক আক্রান্ত না হলেও ভবিষ্যতে যাতে এ ধরনের সমস্যা না হয়, তার জন্য আমরা আগাম প্রস্তুতি নিয়েছি। এ ধরনের আননোন ইভেন্ট মোক‍াবেলার জন্য একটি আবহ তৈরি করে আমরা আগে থেকেই কাজ করছি।

আহমেদ কামাল বলেন, আর্থিক ঝুঁকির চেয়ে এখন অপারেশন ও ডকুমেন্টেশন ঝুঁকিটা বড়। কোথা থেকে কোন দিক থেকে আঘাত আসে তা কেউ জানে না। তিনি আরও বলেন, আইটি ও ডিজিটাল প্লাটফর্মকে ধরে আমরা ভবিষ্যত ব্যাংকিংয়ের দিকে এগিয়ে যাচ্ছি।

তিনি বলেন, ২০১৫ সাল শেষে ব্যাংকের আমানত ১৯ হাজার ৪৮৪ কোটি টাকা, বিনিয়োগ ১৫ হাজার ১৮৬ কোটি টাকা। ১৪৫টি শাখা, ১৭০টি এটিএম বুথ ও ৩টি মানি এক্সচেঞ্জের মাধ্যমে লেনদেন করা হচ্ছে।

এসময় উপব্যবস্থাপনা পরিচালক হাবিবুর রহমান, রাহেল আহমেদ, মো. তৌহিদুল আলম খান, আহমেদ শাহীন, সৈয়দ ফরিদুল ইসলামসহ অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

-বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like