স্বামীকে না পেয়ে কলেজছাত্রীর আত্মহত্যা!

2016_03_12_18_23_08_hZ3Z1BTxe7uuf6gJ1Mk0wvU2vKwj6K_original

দেশ ডেস্ক : বরিশাল নগরীর শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত (দপদপিয়া) সেতুর ওপর থেকে নদীতে ঝাঁপ দিয়ে শামীমা নাসরিন ওরফে আশামনি (২৩) নামে এক কলেজছাত্রী আত্মহত্যা করেছেন।

শনিবার সন্ধ্যা পৌনে ৬টার দিকে ওই ছাত্রীকে মৃত ঘোষণা করেন বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক দাস রনবীর।

আশামনি বরিশাল নগরীর রূপাতলী এলাকার সোহাগ ভিলার ভাড়াটিয়া পুলিশের অবসরপ্রাপ্ত হাবিলদার এনামুল হকের মেয়ে। তিনি নগরীর চাঁদমারীর এডভান্স ইনস্টিটিউট অব হেলথ অ্যান্ড টেকনোলজির শিক্ষার্থী ছিলেন।

বরিশাল মেট্রোপলিটন কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মো. ফারুক জানান, সন্ধ্যা পৌনে ৬টার দিকে শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত সেতু থেকে কীর্তনখোলা নদীতে ঝাঁপ দেন কলেজছাত্রী। এসময় নদীতে অবস্থান করা বালুবাহী জাহাজে থাকা লোকজন তাকে উদ্ধার করে শেবাচিম হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে দায়িত্বরত চিকিৎসক ডা. দাশ রনবির পরীক্ষা করে তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এএসআই মো. ফারুক আরও জানান, ওই কলেজছাত্রীর স্বামী মো. মামুন ঢাকায় তিতাস গ্যাস কোম্পনিতে চাকরি করেন। দীর্ঘ দিন ধরে তিনি বরিশালে আসছেন না। ফলে ধারণা করা হচ্ছে, পারিবারিক কলহের কারণেই আশামনি আত্মহত্যা করেছেন।

তবে আশামনির বাবা এনামুল হক জানিয়েছেন, তার কন্যা মানসিক বিকারগ্রস্ত ছিল।

-বাংলামেইল২৪

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like