ফেনীতে কিশোর নির্যাতনের অভিযোগে আটক ২

2016_04_06_13_38_53_LFWVKOO30pJND5Qk6ehxRPhEszctap_original

চুরির অভিযোগে কিশোর রনি ওরফে হৃদয়কে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের অভিযোগে প্রদীপ ও নজরুলকে আটক করেছে পুলিশ।

বুধবার দুপুর ১টার দিকে শহরের কালিপাল দশমী ঘাট এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়। একই সাথে নির্যাতনের শিকার নিখোঁজ কিশোর রনিকেও উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে পুলিশ।

উদ্ধারকৃত রনি শহরের ডাক্তারপাড়া এলাকার ফারুকের ছেলে।

ফেনীর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাহাবুব মোর্শেদ বাংলামেইলকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, বিকেলে এ বিষয়ে সংবাদ সম্মেলন করা হবে।

গত শুক্রবার (১ এপ্রিল) জুমার নামাজের পর ফেনী শহরের কালিপাল দশমী ঘাট এলাকার ফারুক স্যানিটারি দোকানে  চুরির অভিযোগে এ কিশোরকে নির্যাতন করা হয়। দোকান মালিক ফারুক ও তার সহযোগীরা চুরির অভিযোগে কিশোর রনিকে প্রথমে বিবস্ত্র করে। এরপর তার ওপর নির্যাতন চালানো হয়। দোকান মালিক লাঠি ও রড দিয়ে তাকে নির্মমভাবে পেটায়। এতে কিশোরটি গুরুতর আহত হয়।

ঘটনার সময় মোবাইল ফোনে নির্যাতনের ভিডিও ‍ধারণ করে তা ফেসবুকে ছেড়ে দেয়া হয়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ ভিডিও ছড়িয়ে পড়লে মঙ্গলবার (৫ এপ্রিল) ঘটনাটি অনেকের নজরে আসে।

প্রসঙ্গত, এর আগে সিলেটের শিশু রাজন এবং খুলনার রাকিবকে নির্যাতন করে হত্যা করা হয়েছে। সেই মামলার রায় দিয়েছেন স্থানীয় আদালত। অপরাধীদের সর্বোচ্চ সাজা দেয়া হয়েছে। তবে রায় কার্যকরের আগে আইনি প্রক্রিয়া কবে শেষ হবে তার কোনো সময়সীমা নেই।

কিশোর রনিকে চুরির অভিযোগে নির্যাতনের খবর প্রথম বাংলামেইলে প্রকাশিত হওয়ার পরে বিষয়টি সবার নজরে আসে।

-বাংলামেইল২৪

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like