ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে সেরা অমিতাভ, কঙ্গনা আর বাহুবলী

বিনোদন ডেস্ক: ভারতের ৬৩তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ঘোষণা করা হয়েছে। এতে সুজিত সরকারে ‘পিকু’ ছবিতে অভিনয়ের জন্য সেরা অভিনেতার খেতাব পেয়েছেন অমিতাভ বচ্চন। আর ‘তনু ওয়েডস মনু রিটার্নস’ ছবিতে দ্বৈত চরিত্রে ভিনয়ের জন্য সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার লাভ করেছেন কঙ্গনা রনৌত। এছাড়া সেরা চলচ্চিত্রের পুরস্কার পেয়েছে এসএস রাজামৌলির বিগ বাজেটে ছবি ‘বাহুবলী: দ্য বিগিনিং’।

বিগ বি খ্যাত অমিতাভ বচ্চনের কাছে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ডাল ভাতের মতো হয়ে গিয়েছে। এবার নিয়ে চারবার পেলেন এ পুরস্কার। এর আগে ‘অগ্নিপথ’ (১৯৯০), ‘ব্ল্যাক’ (২০০৫) ও ‘পা’ (২০০৯) ছবির জন্য সেরা অভিনেতার সম্মান লাভ করেছিলেন।

এদিকে ‘পিকু’র জন্য সেরা সংলাপ রচয়িতা ও চিত্রনাট্যকার নির্বাচিত হয়েছেন জুহি চতুর্বেদি। অবশ্য দুটি বিভাগেই পুরস্কার ভাগাভাগি করেছেন হিমাংশু শর্মার (তনু ওয়েডস মনু রিটার্নস) সঙ্গে।

অন্যদিকে গতবার ‘কুইন’ ছবিতে অভিনয়ের জন্য সেরা জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে সেরা অভিনেত্রী হয়েছিলেন কঙ্গনা। সেই ধারাবাহিকতায় এবারও জিতেছেন একই পুরস্কার।

এছাড়া সঞ্জয়লীলা বানসালিও টানা দ্বিতীয়বার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেলেন। ‘বাজিরাও মাস্তানি’র জন্য সেরা পরিচালক হয়েছেন তিনি। এর আগে ২০০৩ সালে ‘দেবদাস’ ও ২০০৬ সালের জাতীয় পুরস্কারে ‘ব্ল্যাক’ ছবির সুবাদে সেরা পরিচালক হন। আর গতবার তার প্রযোজিত ‘মেরি কম’ (প্রিয়াঙ্কা চোপড়া) সেরা বিনোদনমূলক জনপ্রিয় ছবি হয়।

বানসালির ‘বাজিরাও মাস্তানি’ আরও তিনটি বিভাগে জাতীয় পুরস্কার পেয়েছে। এর মধ্যে রেমো ডি’সুজা সেরা নৃত্য পরিচালক, সুদীপ চ্যাটার্জি সেরা চিত্রগ্রাহক ও তানভি আজমি হয়েছেন সেরা পার্শ্ব অভিনেত্রী।

সেরা বাংলা ছবির পুরস্কার পেয়েছে গৌতম ঘোষ পরিচালিত ‘শঙ্খচিল’। সেরা হিন্দি ছবি হয়েছে ‘দম লাগা কে হেইশা’। এ ছবির ‘মোহ মোহ কে ধাগে’ গানটির সুবাদে সেরা গায়িকার পুরস্কার পেলেন মোনালি ঠাকুর। সেরা বিনোদনমূলক ছবি হয়েছে সালমান খানের ‘বজরঙ্গি ভাইজান’।

উল্লেখ্য, ভারতের ৬৩তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রদানের জন্য ১১ সদস্যের জুরি বোর্ডের প্রধান ছিলেন নির্মাতা রমেশ সিপ্পি।

এক নজরে ভারতের ৬৩তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার:

চলচ্চিত্র : বাহুবলী: দ্য বিগিনিং
অভিনেতা : অমিতাভ বচ্চন (পিকু)
অভিনেত্রী : কঙ্গনা রনৌত (তনু ওয়েডস মনু রিটার্নস)
পরিচালক : সঞ্জয়লীলা বানসালি (বাজিরাও মাস্তানি)
জনপ্রিয় বিনোদনমূলক ছবি : বজরঙ্গি ভাইজান
পার্শ্ব অভিনেত্রী : তানভি আজমি (বাজিরাও মাস্তানি)
পার্শ্ব অভিনেতা : সামুথিরাকানি (বিসারানাই)

বাংলা ছবি : শঙ্খচিল

হিন্দি ছবি : দম লাগা কে হেইশা
নৃত্য পরিচালক : রেমো ডি’সুজা (গান: দিওয়ানি মাস্তানি, ছবি: বাজিরাও মাস্তানি)
গায়িকা : মোনালি ঠাকুর (গান: মোহ মোহ কে ধাগে, ছবি: দম লাগা কে হেইশা)
আবহ সংগীত : ইলাইয়া রাজা (থারাই থাপ্পাত্তাই)
সংগীত পরিচালক : এম জয়াচন্দ্রন (কাথিরুন্নু কাথিরুন্নু, ছবি: ইনু নিন্তে মইদিন)
সংলাপ রচয়িতা : জুহি চতুর্বেদি (পিকু) ও হিমাংশু শর্মা (তনু ওয়েডস মনু রিটার্নস)
চিত্রনাট্যকার : জুহি চতুর্বেদি (পিকু) ও হিমাংশু শর্মা (তনু ওয়েডস মনু রিটার্নস)
চিত্রগ্রাহক : সুদীপ চ্যাটার্জি (বাজিরাও মাস্তানি)
পোশাক পরিকল্পনা ও রূপসজ্জাকর : নানক শাহ ফকির
চলচ্চিত্র বান্ধব রাজ্য পুরস্কার : গুজরাট (স্পেশাল মেনশন উত্তর প্রদেশ ও কেরালা)

-বাংলামেইল২৪

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like