অর্থমন্ত্রীকে ‘প্রতিবন্ধী’ বললেন অধ্যাপক বারকাত

অনুষ্ঠানে বারকাত প্রতিবন্ধীদের নিয়ে বক্তৃতা দেওয়ার এক পর্যায়ে বলেন, “আমাদের বাজেট প্রতিবন্ধীবান্ধব নয়। বাজেটে সমাজের অসহায় এই মানুষগুলোর জন্য যে বরাদ্দ থাকার প্রয়োজন তা থাকে না। আর অর্থমন্ত্রী তো নিজেই একজন প্রতিবন্ধী।”

সম্প্রতি আরেক সভায় অর্থমন্ত্রীকে আক্রমণ করে বক্তৃতা করেন জনতা ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যান আবুল বারকাত।

জনতা ব্যাংকের চেয়ারম্যান পদে পুনর্নিয়োগ না পাওয়া বারকাত আগেও প্রকাশ্যে অর্থমন্ত্রীর বিরুদ্ধে বক্তব্য দিয়েছিলেন।

বুধবারের সভায় ‘প্রতিবন্ধীরা সমাজের অবিচ্ছেদ্য একটি অংশ’ মন্তব্য করে বারকাত দেশের বড় বড় করপোরেট হাউজগুলোকে প্রতিবন্ধীদের পাশে দাঁড়ানোর অনুরোধ জানান।

গণমাধ্যমকেও একই অনুরোধ জানান তিনি।

বিশেষায়িত শিক্ষা ও প্রবেশগম্যতার জন্য কাজ করুন: তথ্যমন্ত্রী

বুধবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে স্থানীয় সরকার ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে ‘প্রতিবন্ধীদের কর্মসংস্থান এবং গণমাধ্যম ও কর্পোরেট মহলের ভূমিকা’  শীর্ষক ওই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।

বেসরকারি সংস্থা লিওনার্ড চেশিয়ার ডিজএবিলিটি (এলসিডি) বাংলাদেশ এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।
বিশেষায়িত শিক্ষা, উপযুক্ত প্রশিক্ষণ, কর্মসংস্থান এবং প্রবেশগম্যতা নিশ্চিত করার মাধ্যমে সমাজে প্রতিবন্ধীদের যোগ্য অবদান রাখার ক্ষেত্র তৈরিতে গণমাধ্যম এবং কর্পোরেট প্রতিষ্ঠানগুলোকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে ইনু বলেন, প্রতিবন্ধীরা সমাজের সম্পদ। তাদের সমতার দিকগুলো চিহ্নিত করতে পারলে সমাজ আরো সমৃদ্ধ হবে।

“প্রতিবন্ধী জনগোষ্ঠীর উন্নয়নের জন্য বিশেষায়িত শিক্ষা, উপযুক্ত কর্মসংস্থান ও সমাজের সাথে খাপ খাওয়ানোর চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় সকলকে এগিয়ে আসতে হবে।”

প্রতিবন্ধীদের আর্থিক সহায়তার জন্য সামাজিক উদ্যোগ গ্রহণের ওপর গুরুত্বারোপ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ২০১৩ সালে প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার সরকার প্রতিবন্ধী কল্যাণ আইন প্রণয়নের মাধ্যমে প্রতিবন্ধীদের অধিকার সুরক্ষায় সরকারের দৃঢ় মনোভাব ব্যক্ত করেছেন।

এলসিডি বাংলাদেশের সভাপতি আবুল বারাকাতের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন এলসিডি দক্ষিণ এশিয়ার কর্মসূচি ব্যবস্থাপক শিবরাম এস দেশপান্ডে ।

অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, এক্সেঞ্চার কমিউনিকেশনস ইনফ্রাস্ট্রাকচার সলুশনস লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী রায়হান শামসী, আখতার গ্রুপের সভাপতি ও এফবিসিসিআই পরিচালক কে এম আখতারুজ্জামান এবং রোটারি বাংলাদেশের ঢাকা ডিস্ট্রিক্ট গভর্নর এস এ এম শওকত হোসেন।
আয়োজক সংস্থার পরিচালনা পর্ষদের সদস্য অধ্যাপক সাদেকা হালিম মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন।

অনুষ্ঠানে প্রতিবন্ধীদের কর্মসংস্থানের স্বীকৃতি হিসেবে আনন ট্রেক্স গ্রুপের পরিচালক আনোয়ারুল ইসলাম ফেরদৌস, আখতার ফার্নিশার্স লিমিটেডের উপ-প্রধান এস এ বি বাকিউল হক, ভিনটেজ ডেনিম লিমিটেডের ব্যবস্থাপক নাহিল আহমেদ, রূপসী গ্রুপের অতিরিক্ত বিভাগীয় ব্যবস্থাপক নাসির উদ্দিন এবং ডিফারেন্ট লেইস সুজ লিমিটেডের সভাপতি আখতার লায়েকের হাতে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন তথ্যমন্ত্রী।

-বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like