হেরে বিশ্বকাপ শুরু ভারতের

নিউজ ডেস্ক: এশিয়া কাপে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার আনন্দ নিয়ে বিশ্বকাপ খেলতে মাঠে নেমেছিল ভারত। টসে হেরে শুরুতে বোলিং করেও ধোনিদের চোখে-মুখে ছিল হাসির ঝিলিক। কিন্তু দিন শেষে তাদের মুখে আর হাসি থাকল না। সেই সঙ্গে প্রায় ১৩০ কোটি ভারতীয়দের হাসি কেড়ে নিল নিউজিল্যান্ড। আর নাগপুরের স্টেডিয়ামে খেলা দেখতে যাওয়া ভারতীয় দর্শকদের অবস্থা বর্ণনা করার ভাষা পাওয়া দুষ্কর। কারণ কিউইদের বিপক্ষে ৪৭ রানের হার দিয়ে বিশ্বকাপ শুরু করেছে ভারত।

নিউজিল্যান্ডের দেয়া ১২৭ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নামে ভারত। শুরু থেকে ব্যাটিং বিপর্যয়ে ভুগতে থাকা কোহলিরা শেষ পর্যন্ত সেই ধারা বজায় রেখেছেন। ফলে ২০ ওভারের ম্যাচে ১৮.১ ওভারেই মাত্র ৭৯ রান সংগ্রহ করতেই অল আউট হয়ে যায়।

ব্যাটিংয়ে আগুন জ্বালাতে না পারলেও বোলিংয়ে জাদু দেখাচ্ছে কিউইরা। এতে রীতিমতো বিধ্বস্ত হয় ভারতের ব্যাটসম্যানরা। দলীয় ৫ রানে প্রথম উইকেট হারানো ভারত ২৬ রান করতেই হারাল মোট ৪ উইকেট। এতে পাওয়ার প্লেতে ২৯ রানের বেশি সংগ্রহ করতে পারেনি তারা। পাওয়ার প্লের পরও ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি ধোনি বাহিনী।

বিরাট কোহলি দলকে আশার আলো দেখানোর চেষ্টা করলেও ইশ সোধি তার যাত্রা থামিয়ে দেন।  লুক রঞ্চির হাতে ধরা পড়ার আগে ২৭ বলে ২৩ রান করেন তিনি।

শেষের দিকে দলের ত্রাণকর্তা হওয়ার চেষ্টা করেন অধিনায়ক ধোনি। কিন্তু ৩০ রান করেই পরাজয়ের ব্যবধান কমিয়েছেন। এছাড়া অশ্বিনের ব্যাট থেকে আসা ১০ রানই দুই অঙ্কের ঘরের স্কোর।

কিউই বোলার সান্টনার ৪ ওভার বল করে মাত্র ১১ রান দিয়ে চারটি উইকেট শিকার করেন। সেই সঙ্গে জিতে নেন ম্যাচ সেরার পুরস্কার। এছাড়া তিনটি উইকেট শিকার করেন ইশ সোধি। নাথান ম্যাককালাম দুটি ও অ্যাডাম মিলনে একটি উইকেট পান।

এর আগে মঙ্গলবার বিদর্ভ ক্রিকেট এসোসিয়েশন স্টেডিয়ামে শুরুটা ভালো করতে পারেনি কিউইরা। দ্রুতই মাঠ থেকে বিদায় নেন মার্টিন গাপটিল (৬) ও কলিন মুনরো (৭)। আর কোনো উইকেট না হারালেও পাওয়ার প্লেতে তাদের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৩৩ রান।

পাওয়ার প্লের পর পরই মাঠ থেকে বিদায় নেন কেন উইলিয়ামসন। পরে দলের হাল ধরেন কোরি অ্যান্ডারসন। রস টেইলরকে সঙ্গে নিয়ে রানের চাকা ঘুরানোর চেষ্টা করেন তিনি। তবে রায়নার হাতে টেইলর রান আউট হলে ভেঙে যায় তাদের ২৬ রানের জুটি।

অ্যান্ডারসন বিদায় নেন ৩৪ রান করে। দলের পক্ষে এটিই সর্বোচ্চ স্কোর। ৪২ বল খেলে মাত্র ৩টি চারের সুবাদে এই স্কোর করেন তিনি।

শেষ দিকে সান্টনারের ১৮ রান ও লুক রঞ্চির অপরাজিত ১১ বলে ২১ রানের সুবাদে সাত উইকেটের বিনিময় ১২৬ রান জমা করে নিউজিল্যান্ড। ভারতের বোলার জাদেজা, রায়না, নেহরা, বুমরাহ, অশ্বিন একটি করে উইকেট পান।

-বাংলামেইল২৪

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like