বেতন বৈষম্য দূরীকরণ ও ডিপ্লোমা কোর্স চালুর দাবি হেল্থ এসিসট্যান্ট এসোসিয়েশনের

Monirপ্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচীর অংশ হিসেবে বাংলাদেশ হেল্থ এসিসট্যান্ট এসোসিয়েশন কক্সবাজার জেলা শাখা গতকাল শুক্রবার বেলা ১১টায় কক্সবাজার প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন। সংবাদ সম্মেলনে স্বাস্থ্য সহকারীরা বিদ্যমান বেতন বৈষম্য দূরীকরণ এবং তাদের দীর্ঘদিনের লালিত স্বপ্ন টেকনিক্যাল পদ মর্যদার দাবী তুলেন। কেননা সরকারের অপরাপর বিভাগের পদ পদবী ও বেতনের আমূল পরিবর্তন হলেও স্বাস্থ্য সহকারীরা চরম ভাবে অবহেলিত বলে তারা অভিযোগ করেন। অথচ স্বাস্থ্য সহকারীদের একান্ত প্রয়াসে দেশে পোলিও নির্মূল থেকে শুরু করে অনেক রোগের প্রাদুর্ভাব ক্রমহ্রাসমান এবং প্রিভেনটিভ রোগের আক্রমনের হার অনেক কমে গেছে। স্বাস্থ্য বিভাগের স্বাস্থ্য সহকারীদের অক্লান্ত পরিশ্রমের ফসল বর্তমান প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার জাতীয় ও আন্তর্জাতিক বিভিন্ন পুরস্কার অর্জন। সম্প্রসারিত টিকাদান কর্মসূচীতে এশিয়া মহাদেশে বাংলাদেশের প্রথম স্থান অর্জনসহ বিশ্ব দরবারে স্বাস্থ্য বিভাগের সুনাম এবং সম্মান অর্জনের কারিগরও হলেন স্বাস্থ্য সহকারীরা। কিন্তু তারাই বিভিন্ন ভাবে বঞ্চিত বলে সম্মেলনে অভিযোগ করা হয়। একই পদ মর্যাদার কৃষি সহ অন্যান্য বিভাগে আমূল সংস্কার হলেও স্বাস্থ্য বিভাগের স্বাস্থ্য সহকারীরা সংস্কারহীন থাকায় তারা হতাশা ব্যক্ত করেন। তাই স্বাস্থ্য সহকারীদের হতাশা থেকে উত্তোরণে তাদের প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত টেকনিক্যাল পদ মর্যাদা এবং স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ও মন্ত্রনালয়ের সুপারিশ মোতাবেক বিদ্যমান বেতন বৈষম্য নিরসন সহ আগামী ১ জুলাই হতে ডিপ্লোমা কোর্স চালু করার দাবী জানান।
সাংবাদিক সম্মেলনের লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সংগঠনের জেলা সভাপতি এনামুল হক এনাম ও সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ মুনির উদ্দিন। এতে আরো উপস্থিত ছিলেন জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক মিজানুর রহমান, মিডিয়া ও যোগাযোগ সম্পাদক হাসান মুরাদ সিদ্দিকী, চকরিয়া উপজেলা সভাপতি মোহাম্মদ হোসাইন, সাধারণ সম্পাদক পলাশ সুশীল, সদর উপজেলা সভাপতি হাসান জাহাঙ্গীর, সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসাইন, মহেশখালী উপজেলার সাধারণ সম্পাদক নুরুল আলম হেলালী সহ কক্সবাজার জেলাধীন আট উপজেলার নেতৃবৃন্দ।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like