জাতীয়তাবাদী শক্তিকে নিঃশেষ করতে তারেকের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র

Rizvi_sm_757785197

জাতীয়তাবাদী শক্তিকে নিঃশেষ করতে বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে সরকার ষড়যন্ত্র করছে বলে অভিযোগ তুলেছেন দলটির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

বৃহস্পতিবার ( ১০ মার্চ) সকালে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভায় তিনি এ অভিযোগ করেন।

তারেক রহমানের কারাবরণ দিবস উপলক্ষে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে  বিএনপি।

রিজভী বলেন, জাতীয়তাবাদী শক্তিকে নিঃশেষ করার পরিকল্পনায় ২০০৭ সালে বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে মিথ্যা মামলায় করাগারে পাঠানো হয়।

সে ধারাবাহিকতা বর্তমান সরকার অব্যাহত রেখেছে অভিযোগ করে তিনি বলেন, জাতীয়তাবাদী শক্তি যাতে দাঁড়াতে না পারে, তাদের (সরকার) লুটপাট, আত্মসাৎ ও স্বেচ্ছাচারিতার বিরুদ্ধে কথা বলতে না পারে, সেজন্য তারা আমাদের নিঃশেষ করতে চায়।

তারেকের বক্তব্য যাতে কোনো গণমাধ্যমে প্রচার না হয় সে ব্যবস্থাও সরকার করেছে। আমরা কথা বললেই মামলা খাড়া হয়ে যায়। বাকশাল বিরোধিতা মানেই তারা ধরে নেয় ‘রাষ্ট্রদ্রোহীতা’- বলেন রিজভী।

প্রধানমন্ত্রী এবং তার লোক ছাড়া কেউ কথা বলতে পারছে না অভিযোগ করে তিনি বলেন, কেউ কথা বলুক তারা তা চায় না।  তার (শেখ হাসিনা) দলের লোকেরা যা ইচ্ছে তা বলবে। এর প্রতিবাদ করা কি অপরাধ? বিএনপির বিরুদ্ধে লাগামহীন নোংরা কথা বললে তার প্রতিবাদ করা যাবে না? স্বাধীনতা কোথায় আছে তাহলে?

আওয়ামী লীগ দিয়ে দেশের উন্নয়ন সম্ভব নয় মন্তব্য করে তিনি বলেন, তারা মুখে বলে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে; বাস্তবে তা নয়। সরকার বলছে, বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি ৬ বা তার উপরে। আর বিশ্বব্যাংকের প্রতিবেদন বলছে ভিন্ন কথা। বিশ্বব্যাংকের প্রতিবেদন অনুযায়ী সরকারের দেওয়া তথ্য মিথ্যা।

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা শামসুজ্জামান দুদু। উপস্থিত ছিলেন দলটির বিভিন্ন পর্যায়ের প্রায় শতাধিক নেতাকর্মী।

-বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like