দুই মন্ত্রীকে শাসালেন প্রধানমন্ত্রী

pmbg_883929871জাগোনিউজ : প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার (এসকে) সিনহাকে নিয়ে মন্তব্য করার কারণে খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হককে শাসালেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সোমবার মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে তাদের মন্তব্যের ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী কথা বলেন এবং ভবিষ্যতে এই ধরনের মন্তব্য থেকে বিরত থাকার নির্দেশ দেন। বৈঠক সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

এর আগে গত শনিবার ধানমন্ডির বিলিয়া মিলনায়তনে একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি আয়োজিত গোলটেবিল আলোচনায় খাদ্যমন্ত্রী বলেন, ‘জামায়াত যে অভিযোগ করেছে, বিএনপি যে অভিযোগ করেছে, তাদের আন্তর্জাতিক লবিস্ট গ্রুপ যে সুরে কথা বলছে, একই সুরে কথা বলেছেন প্রধান বিচারপতি। প্রকারান্তরে রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে, সরকারের বিরুদ্ধে অভিযোগ করলেন তিনি। শুধু তাই নয়, এই বক্তব্য ট্রাইব্যুনালের পাঁচ বছরের বিচারকে প্রশ্নবিদ্ধ ও হত্যা করা হয়েছে।’

খাদ্যমন্ত্রীর এমন মন্তব্যের সমালোচনা করে রোববার অ্যাটর্নি অ্যার্টনি জেনারেল মাহবুবে আলম প্রধান বিচারপতি ও বিচার ব্যবস্থা নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করা থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, “প্রধান বিচারপতি কোনো ব্যক্তি নয়, একটি প্রতিষ্ঠান। প্রধান বিচারপতিকে বিতর্কিত করা মানে বিচার ব্যবস্থাকে বিতর্কিত করা। তাই প্রধান বিচারপতি ও বিচারালয় নিয়ে বক্তব্য দেয়া থেকে বিরত থাকতে সকলের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।

এদিন সুপ্রিমকোর্ট বার আয়োজিত প্রধান বিচারপতিকে নিয়ে দুই মন্ত্রীর বক্তব্যর প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলনে সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেন, “প্রধান বিচারপতি ও মীর কাশেম আলীর রায় নিয়ে সরকারের দুই মন্ত্রী যে মন্তব্য করেছেন তাতে সরকার কী পদক্ষেপ নেয়, সেটাই দেখার বিষয়।

এদিকে সরকারের গুরুত্বপূর্ণ পদে থাকা দুই মন্ত্রীর এমন মন্তব্যের কারণে গণমাধ্যমে চলছে আলোচনা সমালোচনার ঝড়। অনেকে আবার বলছেন মন্ত্রীদের এমন বেফাঁস মন্তব্যের কারণে সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হচ্ছে।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like