খ্যাতি, সুনাম এসবের পরেও এঁরা বেছে নেন আত্মহত্যার পথ

জীবন সবে যখন কেরিয়ারের মধ্যগগনে, তখনই এঁরা জীবন বিমুখ হয়ে ওঠেন। নিজেকে শেষ করার মতো চরম সিদ্ধান্ত নিয়ে বসেন। কিন্তু, কেন? বহুক্ষেত্রে আজও উত্তর মেলেনি।

১) জিয়া খান- মাত্র তিনটে ছবিতে অভিনয়ের পরই নিঃশব্দে জীবন থেকে সরে দাঁড়ান “নিঃশব্দ” নায়িকা। ২০১৩-র জুনে নিজ বাসভবনেই জিয়ার ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়। এই ঘটনায় অভিযোগের তির বয়ফ্রেন্ড সূরজ পাঞ্চোলির দিকে।

২) মেরিলিন মনরো- হলিউডের সেক্স সিম্বল। ৩৬ বছর বয়সে অতিরিক্ত পিল নেওয়ার ফলেই তাঁর মৃত্যু হয় বলে অনুমান।

landscape-1426091565-hbz-marilyn-monroe-index

৩) দিব্যা ভারতী- ৯০-এর দশকে সফল অভিনেত্রী। ১৯ বছর বয়সে নিজের পাঁচতলার ফ্ল্যাটের জানলা দিয়ে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি। তবে তাঁর মৃত্যু নিয়ে অনেক বিতর্ক আছে।

৪) সিল্ক স্মিতা- দক্ষিণী অভিনেত্রী। ৮০-র দশকে বোল্ড অভিনয় করে নজরে আসেন। কিন্তু, ১৯৯৬-এর সেপ্টেম্বরে একদিন নিজের বেডরুমে তাঁর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়। জীবনের প্রতি হতাশ ও মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন বলে তিনি তাঁর সুইসাইড নোটে লিখে যান।

৫) কুলজিত রানধাওয়া- ছোটোপর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী ও মডেল। “কোহিনূর” সিরিজে সবার নজর কাড়েন তিনি। ২০০৬-এ নিজ বাসভবনে উদ্ধার হয় তাঁর ঝুলন্ত দেহ। এখানেও দায়ি অত্যধিক মানসিক চাপ।

৬) নাফিসা জোসেফ- মডেল ও MTV ভিডিও জকি। ১৯৯৭-এ মিস ইন্ডিয়া ইউনিভার্স খেতাবের অধিকারিণী। এরপর মিস ইউনিভার্সে সেমি ফাইনালিস্ট। ২০০৪-এ আত্মহত্যা করেন নাফিসা। কিছুদিন পরেই তাঁর বিয়ের কথা ছিল। জানা গেছে প্রেমে প্রতারিত হয়েই চরম পথ বেছে নেন নাফিসা।

জি নিউস

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like