ঈদগাঁওতে সন্ত্রাসী হামলায় একই পরিবারের ৭ জন আহত

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঈদগাঁও, কক্সবাজারটাইমসডটকম, ০৫ মার্চ: কক্সবাজার সদরের ঈদগাঁওর ইসলামাবাদে সন্ত্রাসী হামলায় একই পরিবারের ৭ জন রক্তাক্ত আহত হয়েছে। এতে এক জনের হাত বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। আহতদের মধ্যে অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় ৩ জনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বৃহষ্পতিবারের ইসলামাবাদে এ ঘটনা ঘটে।
আহতরা হলো- মধ্যম গজালিয়া এলাকার আমানুল হকের ছেলে আবু তৈয়ব (২৮), তার ভাই আবুল কাশেম (২০) ও তারেক (২২), চাচা শরীফ (৪৫), আত্মীয় রাশেদ (৩৫), বোন, বোন জামাই মিজান ও তার মা। আহতদের প্রথমে ঈদগাঁওস্থ এক ক্লিনিকে এবং পরে অবস্থার অবনতি হলে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করে। চিকিৎসক ৩ জনের অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাদেরকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন।
হামলার শিকার পরিবার সূত্রে জানা যায়, এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসীরা ঘটনার দিন আদালতের দেয়া নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে আবদুল হামিদের পুত্র হারুনের নেতৃত্বে তার সহোদর আবদুল জলিল, রিদুয়ান, রমজান, আত্মীয় জুবাইর, মিজান ও একদল মহিলা সন্ত্রাসীসহ ৩৫/৪০ জনের সন্ত্রাসী দল ধারালো অস্ত্র সহকারে আবু তৈয়বের বসতভিটায় প্রবেশ করে আবু তৈয়বকে মাথায় উপর্যুপরী কুপিয়ে আহত করে। পরে তার বোন জামাই মিজানের ১টি পায়ে ধারালো অস্ত্রে আঘাত করে। এসময় তাদেরকে বাঁচাতে এগিয়ে আসলে ছোট ভাই আবুল কাশেমের হাতের কব্জি ও হাতের আঙ্গুল কিরিচের আঘাতে আলাদা হয়ে যায়। তাদের উদ্ধার করতে এগিয়ে আসলে তার মা, বোন, ভাই তারেক, চাচা শরিফ ও আত্মীয় রাশেদুল ইসলাম ও হামলার শিকার হয়। এসময় সন্ত্রাসীরা বাড়ীর প্রয়োজনীয় আসবাবপত্র, টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার লুট করে নিয়ে যায় বলেও জানায় গুরুতর আহত আবু তৈয়বের মা। ঘটনার পরপরই সংবাদ পেয়ে ঈদগাঁও পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে পৌছলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়।
ঈদগাঁও পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মিনহাজ মাহমুদ ভুঁইয়ার সাথে যোগাযোগ করা হলে জানান, ঘটনায় জড়িত সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।
উল্লেখ্য, বিগত কয়েক বছর পূর্বে আহতের পরিবার জায়গাটি ক্রয় করে তার উপর বসতি তৈরী করে বসবাস করে আসছিল। সম্প্রতি মূল্য বেড়ে যাওয়ায় জায়গাটি দখলে নিতে বারবার চেষ্টা চালায় একই এলাকার আবদুল হামিদের পুত্র হারুনের নেতৃত্বে একদল চিহ্নিত সন্ত্রাসী। ইতিপূর্বে একাধিকবার ঐ জায়গা নিয়ে হামলার ঘটনাও ঘটে। ঈদগাঁও পুলিশ ঐ সময় ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে উভয় পক্ষকে নিজ নিজ অবস্থানে থাকার পরামর্শ দেয়। উভয় পক্ষের পাল্টাপাল্টি মামলার জেরে ঈদগাঁও পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের আইসির নিকট কয়েকবার শালিসী বৈঠকও হয়। এদিকে সন্ত্রাসীরা হামলার হুমকি দেওয়ায় আহত আবু তৈয়ব ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে সাধারণ ডায়েরীও করে।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like