গর্ভনিরোধক পিল খাচ্ছেন? এই বিষয়গুলি নজরে রাখুন

স্বাস্থ্য ডেস্ক:

গর্ভধারণ রুখতে বেশিরভাগ মহিলাই আস্থা রাখেন গর্ভনিরোধক পিলে। স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞদের মত, ৯৯.৭ শতাংশ ক্ষেত্রে সেই পিল কাজেও দেয়। কিন্তু তার জন্য দরকার একজন ডাক্তারের পরামর্শ। নইলে পিল খাওয়ার পরেও গর্ভধারণের ঝুঁকি কিন্তু থেকেই যায়।
পিল খাওয়ার ক্ষেত্রে যে যে ভুলগুলি মহিলারা করেন-

১) ২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে একটি নির্দিষ্ট সময়ে নিয়মিত ভিত্তিতে পিল খাওয়া উচিত। নইলে গর্ভধারণের ঝুঁকি থেকেই যায়। রাতের চেয়ে সকালে ঘুম থেকে উঠে পিল খাওয়াই বেশি কার্যকরী।

২) পিল খাওয়া শুরু করার পর যদি একদিনও ভুলে যান তাহলেই বিপদ। অবাঞ্ছিত গর্ভধারণের সম্ভাবনা সেক্ষেত্রে প্রবল। তাই ভুলে যাওয়ার পরদিন অতি অবশ্যই মনে করে ২টি পিল খান।

৩) পিল না খাওয়া অবস্থাতেই যদি অসুরক্ষিত সেক্স করেন, তাহলে ডাক্তারের সঙ্গে পরামর্শ করে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ইমারজেন্সি পিলও খাওয়া যেতে পারে।

৪) পিল খাওয়ার পর যদি গা বমি বমি করে, তাহলে অবিলম্বে ডাক্তারের সঙ্গে যোগাযোগ করুন। কিছুদিন এড়িয়ে চলুন অসুরক্ষিত সেক্স।

৫) পিরিয়ডের দ্বিতীয় বা পঞ্চমদিন থেকে পিল খাওয়া শুরু করা উচিত। যদি ঋতুচক্রের মাঝামাঝি সময় থেকে পিল খান, তাহলে অন্তত ৭ দিন কোনওভাবেই অসুরক্ষিত যৌনজীবন নয়।

৬) গরমে পিলের কার্যকারিতা নষ্ট হয়। তাই অপেক্ষাকৃত ঠান্ডা জায়গায় পিল রাখা উচিত। প্রত্যক্ষ সূর্যালোক যেন কোনওভাবেই পিলের উপর এসে না পড়ে। খোলা জায়গায় না রেখে ড্রয়ারে রাখুন পিলের স্ট্রিপ। আর একসঙ্গে ছ’মাসের নয়, একমাসের ওষুধ কিনুন।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like