মন্ত্রণালয়গুলোকে মনযোগী ও যত্নবান হতে স্পিকারের রুলিং

speaker1456749620রাইজিংবিডি: কার্যপ্রণালী বিধির ৫২ শর্তবিধি অনুযায়ী সব মন্ত্রণালয়কে বিধি অনুসরণ পূর্বক প্রশ্নোত্তর প্রদানে অধিক যত্নবান ও মনযোগী হওয়ার নির্দেশ দিয়ে রুলিং দিয়েছেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। সংসদে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কর্তৃক একটি প্রশ্নোত্তর প্রদান না করার ঘটনা উল্লেখ করে বিধির ব্যতয় ঘটেছে উল্লেখ করে এই নির্দেশনা দেন তিনি।

সোমবার বিকেলে জাতীয় সংসদের নবম অধিবেশন শুরুর পর দিনের কার্যসূচি অনুযায়ী প্রশ্ন জিজ্ঞাসা ও উত্তর পঠিত বলে গণ্য করেন তিনি। এরপর গত ১৬ ফেব্রুয়ারি জামালপুর-১ আসনের সরকার দলীয় সংসদ সদস্য আবুল কালাম আজাদের পয়েন্ট অব অর্ডারের বিষয়ে সব সংসদ সদস্যের দৃষ্টি আকর্ষণ করে স্পিকার এই নির্দেশনা প্রদান করেন।

স্পিকার বলেন, গত ১৬ ফেব্রুয়ারি মাননীয় সংসদ সদস্য আবুল কালাম আজদ একটি বিষয়ে পয়েন্ট অব অর্ডারে আমাকে দৃষ্টি আকর্ষণ করেছিলেন। আমি বলেছিলাম আমি বিষয়টি বিস্তারিত জেনে সংসদকে অবহিত করবো। আমি ইতিমধ্যে বিস্তারিত জেনেছি, তাই আপনাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।

মাননীয় সংসদ সদস্য গত ২ ফেব্রুয়ারি তারকাচিহ্নত প্রশ্ন ৬৭৭ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বরাবর করেছিলেন; কিন্তু প্রশ্নোত্তর বইয়ের ৩৪ পৃষ্ঠায় পরবর্তী  নির্ধারিত দিনে স্থানান্তরিত বলে উল্লেখ করা হয়। সেই অনুযায়ী কার্যপ্রনালী বিধির, ৫২ শর্ত বিধি অনুসারে পরবর্তী উত্তরদানের জন্য নির্ধারিত দিনে অর্থাৎ ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৬, প্রশ্নোত্তর বইয়ে অন্তর্ভুক্ত হওয়ার কথা, কিন্তু তা হয়নি।

তিনি বলেন, সংসদ সদস্য আবুল কালাম আজাদ একই প্রশ্ন প্রথবার করেন ২০১৫ সালের ১৯ নভেম্বর। তখন প্রশ্নোত্তর বইয়ে তারকা চিহ্নত প্রশ্ন ৮৭৫ পরবর্তী দিনে স্থানান্তর ছিল, সেই অনুযায়ী পরবতী দিন আসার আগেই অষ্টম অধিবেশন শেষে হয়ে যায়। এরপর চলতি নবম অধিবেশন শুরু হলে ২ ফেব্রুয়ারি আবারও একই প্রশ্ন করেন আবুল কালাম আজাদ। সেদিনও পরবর্তী দিনের জন্য স্থানান্তর  করা হয়। সেই অনুযায়ী পরবর্তী নির্ধারিত দিনে অর্থাৎ ১৬ ফেব্রুয়ারি উত্তর প্রদান করা আবশ্যক ছিল, অথবা মন্ত্রণালয় কর্তৃক তা স্থানান্তর করার অনুরোধ করার প্রয়োজন ছিল, কিন্তু স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কতৃক কোনটিই করা হয়নি।

এসময় কার্যপ্রণালী বিধি উল্লেখ করে স্পিকার বলেন, কার্যপ্রণালী ৫২ বিধির শর্ত অনুযায়ী, ‘মন্ত্রী যদি উক্ত প্রশ্নের লইয়া প্রস্তুত না থাকেন, তাহা হইলে তাহার অনুরোধক্রমে প্রশ্নটি উক্ত মন্ত্রণালয়ের জন্য বরাদ্দ পরবর্তী দিনে উত্তরদানের জন্য তালিকায় ভুক্ত হইবে। কাজেই মাননীয় মন্ত্রীগণ যদি কোন প্রশ্নের তাৎক্ষণিকভাবে উত্তর  দেওয়ার জন্য তার কাছে যথেষ্ট তথ্য না থাকে, বা সেগুলো নিয়ে যদি প্রস্তুত না থাকে তাহলে কার্যপ্রণালীর বিধির ৫২’ শর্ত বিধি অনুযায়ী সেটি তিনি পরবর্তী দিনে রাখতে পারেন।’

 

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like