সরকারিকরণ হয়েছে ২৬১৯৩ প্রাথমিক বিদ্যালয়

বাংলামেইল: সারা দেশে একযোগে ২৬ হাজার ১৯৩টি রেজিস্টার্ড বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়কে সরকারিকরণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান। ২০১৩ সালের ১ জানুয়ারি বর্তমান সরকারের জারি করা গেজেটের মাধ্যমে এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো সরকারিকরণ করা হয় বলে জানান তিনি।

রোববার বিকেলে ১০ জাতীয় সংসদের ৯ম অধিবেশনে বেগম নুর-ই-হাসনা লিলি চৌধুরী’র (মহিলা আসন-৪৪) এ বিষয়ক এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এ তথ্য জানান।

মন্ত্রী বলেন, ‘বর্তমানে দেশে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সংখ্যা ২৪ ক্যাটাগরিতে ১ লাখ ২২ হাজার ১৭৬টি। এর মধ্যে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সংখ্যা ৩৭ হাজার ৬৭২টি।

নোয়াখালী-২ আসনের সংসদ সদস্য মোরশেদ আলম মন্ত্রীর কাছে জানতে চান, ‘চলতি অর্থবছরে নোয়াখালী জেলার সেনবাগ ও সোনাইমুড়ি উপজেলার বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নতুন ভবন নির্মাণের কোনো পরিকল্পনা সরকারের আছে কি?’

উত্তরে মন্ত্রী বলেন, ‘বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নতুন ভবন নির্মাণ করবার কোনো পরিকল্পনা সরকারের আপাতত নেই। তবে নব জাতীয়করণকৃত প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চাহিদার ভিত্তিতে নতুন ভবন নির্মাণের পরিকল্পনা আছে এবং এ লক্ষ্যে একটি প্রকল্প প্রণয়ন করা হয়েছে, যা অনুমোদনের অপেক্ষায় আছে।’

নাটোর-২ আসনের সংসদ সদস্য মো শফিকুল ইসলাম শিমুল এর প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ‘শিক্ষার মান বৃদ্ধির লক্ষ্যে প্রয়োজনীয়তার অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে চলতি অর্থবছরে নাটোর জেলার সদর ও নলডাঙ্গা উপজেলার প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভবন নির্মাণ ও আসবাবপত্র দেয়ার পরিকল্পনা সরকারের আছে। এটি একটি চলমান প্রক্রিয়া।’

বেগম খোরশেদ আরা হক (মহিলা আসন -৫০) এর প্রশ্নের জবাবে গণশিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘কক্সবাজার জেলার কুতুবদিয়া, মহেশখালী, পেকুয়া ও টেকনাফ উপজেলায় উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরোর আওতাধীন ‘মৌলিক স্বাক্ষরতা প্রকল্পের (৬৪ জেলা) কর্মসূচি অতি শীঘ্রই বাস্তবায়ন করা হবে। এছাড়া প্রতিটি উপজেলায় অনধিক ৩০০টি শিক্ষাকেন্দ্র স্থাপন করা হবে।’

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like