‘বাংলাদেশ বড় ধরনের ভূমিকম্প ঝুঁকিতে’

Hasina01455719380রাইজিংবিডি: সিসমিক প্লেটের অবস্থানের বিবেচনায় বাংলাদেশ বড় ধরনের ভূমিকম্প ঝুঁকিতে রয়েছে বলে সংসদে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বুধবার বিকেলে দশম জাতীয় সংসদের নবম অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রী তার জন্য নির্ধারিত প্রশ্নের জবাবে এ তথ্য জানান।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিভিন্ন সিসমিক প্লেটের সমন্বয়ে পৃথিবী গঠিত। ভূমিকম্পের মূল কারণ সিসমিক প্লেটের ঘর্ষণ। প্লেট বাউন্ডারিতে অনবরত ঘর্ষণের ঘটনা ঘটে। এতে প্রচন্ড তাপ ও চাপ সৃষ্টি হয়। এই তাপ ও চাপ যখন ধারণ ক্ষমতার বাইরে যায় তখন ভূমিকম্প সংঘটিত হয়।

বাংলাদেশের খুব কাছে উত্তর সীমান্তে ইন্ডিয়ান প্লেট ও ইউরেশিয়া প্লেট বাউন্ডারি এবং পূর্ব সীমান্তে ইন্ডিয়ান প্লেট ও বার্মা প্লেট বাউন্ডারির অবস্থান। গত বছরের ১৫ এপ্রিল নেপালে এই স্থান থেকেই ভূমিকম্পের উৎপত্তি হয় বলেও উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশের উত্তর সীমান্তে ডাউকি ফল্ট (ফাটল), অভ্যন্তরে শ্রীমঙ্গল ফল্ট এবং মুধুপুর ফল্ট রয়েছে। এগুলো অ্যাকটিভ বলে ভূমিকম্প বিজ্ঞানীদের অভিমত। তাই এসব বিবেচনায় বাংলাদেশ ভূমিকম্পের বড় ধরনের ঝুঁকিতে রয়েছে।

প্রায়শই বাংলাদেশের কাছাকাছি অঞ্চলে ছোট, মাঝারি ও বড় ধরনের ভূমিকম্প সংঘটিত হচ্ছে। পাশাপাশি বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর থেকে এ পর্যন্ত যে সব সাত মাত্রার অধিক ভূমিকম্প দেশে সংঘটিত হয়েছে এতে নিহতের সংখ্যাও তুলে ধরেন তিনি।

ভূমিকম্পের ক্ষয়ক্ষতি মোকাবেলায় সরকারের বিভিন্ন গৃহীত পদক্ষেপের কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এ লক্ষ্যে গত ৯ ফেব্রুয়ারি ঢাকা মেট্রোপলিটন এরিয়া এবং চট্টগ্রাম শহরের ভবনসমূহের কাঠামো দৃঢ় করা এবং এর মাধ্যমে ভূমিকম্পের ঝুঁকি হ্রাস করার উদ্দেশ্যে একনেক সভায় নগর অঞ্চলের ভবন সুরক্ষা (আরবান বিল্ডিং সেফটি প্রজেক্ট) শীর্ষক প্রকল্প অনুমোদিত হয়।

এছাড়াও বিভিন্ন পদক্ষেপ ও পরিকল্পনার কথা তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী।

-রাইজিংবিডি

 

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like