গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ডের স্বাদ পেলেন যারা…

বিনোদন ডেস্ক: সঙ্গীতের অস্কার বলা হয় গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ডকে। প্রতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে অস্কারের আগে আগে দেয়া হয় সঙ্গীতের এই গৌরবময় পুরস্কার। ১৫ ফেব্রুয়ারি রাতে লস অ্যাঞ্জেলসের স্টেপলস সেন্টারে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ডসের ৫৮তম আসর। তিন ঘণ্টার জাঁকঝমকপূর্ণ আয়োজনে অন্তত ৮০টিরও বেশি বিভাগে পুরস্কার দেয়া হয়।

টাইটানিকে গাওয়া ‘মাই হার্ট উইল গো অন’ খ্যাত গানের শিল্পী সেলিন ডিওনের সদ্য প্রয়াত স্বামী রেনে অ্যাঞ্জেলির প্রতি সম্মান জানিয়ে শুরু হয় গ্র‌্যামি অ্যাওয়ার্ডস-এর আনুষ্ঠানিক আয়োজন। শুধু তাই না, অনুষ্ঠানের শুরুতেই সেলিন ডিওন এই গানটিও গেয়ে শোনান। তুমুল কড়তালির মধ্য দিয়ে তার গানটি শেষ হতেই মঞ্চে পারফর্ম করেন অন্যান্য জনপ্রিয় বেশ কয়েকজন বিশ্বখ্যাত শিল্পী।

আর এরপরেই একে একে ঘোষণা করেন সঙ্গীতে অবদানের জন্য অন্তত ৮০টিরও বেশি পুরস্কারের কথা।  এটি ১৯৫৮ সালে প্রবর্তিত হয়। ১৯৭১ সাল পর্যন্ত এই পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান নিউ ইয়র্ক এবং লস এঞ্জেলেসে উনুষ্ঠিত হত। এটি আমেরিকার সবচেয়ে সম্মানজনক সঙ্গীত পুরস্কার।

চলতি আসরে পুরস্কার বিতরণীতে ছিল বেশকিছু চমক! এরমধ্যে সবচেয়ে সবচেয়ে বেশী আকর্ষিত ছিল বিশ্বখ্যাত পপস্টার জাস্টিন বিবারের গ্র্যামি জয়! প্রথমবারের মতো গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ড জিতলেন তিনি। ডিজে ‘স্ক্রিলেক্স’ ও ‘ডিপ্লো’র সঙ্গে গাওয়া তার একক গান ‘হোয়্যার আর ইউ নাউ’ গানটির জন্য এই সম্মাননা পেয়েছেন তিনি। গ্যালানটিস, ফ্লাইং লোটাস, দ্য কেমিক্যাল ব্রাদার্স এবং অ্যাবোভ অ্যান্ড বিয়ন্ড -এর গানের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করে বিবারের ‘হোয়্যার আর ইউ নাউ’ গানটি পুরস্কার জয় করে নিয়েছে।

এখানে দেখে নিন গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ড-এর পূর্ণ তালিকা:

রেকর্ড অব দ্য ইয়ার: মার্ক রনসন ফিচারিং ব্রুনো মার্স, আপটাউন ফ্যাঙ্ক
বছরের সেরা অ্যালবাম: ১৯৮৯, টেইলর সুইফট
শ্রেষ্ঠ নতুন শিল্পী: মেগান ট্রেইনর
শ্রেষ্ঠ রক পারফর্মার: অ্যালবামা শেকস, ডোন্ট ওয়ানা ফাইট
শ্রেষ্ঠ মিউজিক্যাল থিয়েটার অ্যালবাম: হ্যামিলটন
বছরের সেরা গান: থিংকিং আউট লাউড, এড সেরান
বেস্ট কান্ট্রি অ্যালবাম ক্রিস স্টেপলটন, ট্রাভেলার
বেস্ট র‌্যাপ অ্যালবাম: কেন্ড্রিক ল্যামার, টু পিম্প এ বাটারফ্লাই

বেস্ট পপ ডুয়েট/গ্রপ: মার্ক রনসন ফিচারিং ব্রুনো মার্স, আপটাউন ফ্যাঙ্ক

শ্রেষ্ঠ ট্র্যাডিশনাল পপ ভোকাল অ্যালবাম— দ্য সিলভার লাইনিং: দ্য সংস অফ জেরম কার্ন-এর জন্যে টোনি বেনেট এবং বিল শার্লাপ

শ্রেষ্ঠ রক অ্যালবাম: মিউজ-এর ‘ড্রোনস’
শ্রেষ্ঠ মেটাল পারফর্মেন্স: সিরাইমস, গোস্ট
শ্রেষ্ঠ অল্টারনেটিভ মিউজিক অ্যালবাম: সাউন্ড অ্যান্ড কালার, অ্যালাবামা শেকস
শ্রেষ্ঠ আরবান কনটেম্পরারি অ্যালবাম: বিউটি বিহাইন্ড দ্য ম্যাডনেস, দ্য উইকেন্ড
শ্রেষ্ঠ আর এন্ড বি:  ডি’অ্যাঞ্জেলো এবং দ্য ভ্যানগার্ডের রিয়ালি লাভ
শ্রেষ্ঠ আর এন্ড বি উপস্থাপনা: দ্য উইকেন্ডের আর্নড ইট (ফিফটি শেডস অফ গ্রে)
শ্রেষ্ঠ আর এন্ড বি অ্যালবাম: ডি’অ্যাঞ্জেলো এবং দ্য ভ্যানগার্ডের ব্ল্যাক মেসিহা
শ্রেষ্ঠ র‌্যাপ উপস্থাপনা: অলরাইট, কেনড্রিক লামা

শ্রেষ্ঠ র‌্যাপ/ সাং কোলাবরেশন: দিজ ওয়ালস, কেনড্রিক লামা
শ্রেষ্ঠ কান্ট্রি সং– লিটল বিগ টাউন-এর গার্ল ক্রাশ
শ্রেষ্ঠ কান্ট্রি অ্যালবাম: ট্র্যাভেলর,  ক্রিস স্ট্যাপলেটন
শ্রেষ্ঠ কান্ট্রি ডুয়ো/ গ্রুপ উপস্থাপনা: গার্ল ক্রাশ, লিটল বিগ টাউন

-বাংলামেইল

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like