ধূমপানে আসক্তির কারণ জিন!

woman-smoking-cigar

ধূমপানের প্রতি আসক্তি, বিষন্নতাসহ শারীরিক আরও বেশকিছু রোগ-ব্যাধির সঙ্গে নিয়েনডারথাল (Neanderthal) নামে একটি জিন জড়িত বলে নিশ্চিত হয়েছেন আমেরিকার কয়েকজন বিজ্ঞানী।

ভ্যান্ডারবিল্ট ইউনিভার্সিটি ইন টেনাসির (Vanderbilt University in Tennessee) বিজ্ঞানীরা তাদের গবেষণায় বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছেন। শুক্রবার (১২ ফেব্রুয়ারি) দ্যা জার্নাল সায়েন্স (the journal Science) এর ১২তম সংখ্যায় এ বিষয়টি প্রকাশিত হয়েছে।

২০১০ সালে প্রাপ্ত তথ্য থেকে জানা যায়, নিয়েনডারথাল ডিএনএ’র কারণে ইউরোপিয়ান-আমেরিকানরা বিভিন্ন ধরনের স্বাস্থ্যগত সমস্যায় ভোগেন। কিন্তু এবারের গবেষণায় সরাসরি জানা গেল, নিয়েনডারথাল জিনের প্রভাবে কী কী সমস্যা সৃষ্টি হচ্ছে।

আর্টিকেলের লেখক  বিজ্ঞানী জন কেপরা বলেন, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা, স্নায়ুবিক সক্ষমতা, মানসিক অবস্থা ও প্রজনন ক্ষমতা এবং ত্বকের গঠনের ওপর নিয়েনডারথাল জিনের প্রভাব রয়েছে। গবেষণায় এ সম্পর্কে আমরা নিশ্চিত হয়েছি।

তিনি বলেন, আমরা বুঝতে পেরেছি, এই গবেষণার মাধ্যমে মানব বিবর্তন সম্পর্কিত বিভিন্ন প্রশ্নের আমরা উত্তর খুঁজে পাবো।

কেপরা বলেন,  বংশগতভাবে এই জিন বিভিন্ন বৈশিষ্ট এক প্রজন্ম থেকে অন্য প্রজন্মে সরবরাহ করে। আর্টারি পুরু হয়ে যাওয়া, হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা এমনকি নিকোটিনের প্রতি আসক্ত (ধূমপানে আসক্ত) হওয়ার বিষয়টি এই জিনের মাধ্যমে ঘটছে।

বিজ্ঞানীরা বলেন, আমেরিকায় মাত্র কয়েক শতক আগে ইউরোপ থেকে তামাকের আগমন ঘটে। কিন্তু নিয়েনডারথাল জিনের প্রভাব তথা নিকোটিনের প্রতি আমেরিকানদের আসক্তি প্রায় ৫০,০০০ বছর আগে থেকেই চলে আসছে। যা এই গবেষণার মাধ্যমে জানা গেছে বলে বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like