নিয়ম না মেনে ফল খেলে বাড়তে পারে ওজন

WomanFruit1-1200x1034 copy

লাইফস্টাইল ডেস্ক: স্বাস্থ্য ভাল রাখতে ফল খেতে হবে। মেদ ঝরাতে নিয়মিত ফল খাওয়া উচিত্। এমন কথা যেমন শোনা যায়, তেমনই ছোট থেকে ফল খাওয়া নিয়ে কিছু বারণ শুনেও আমরা বড় হয়ে থাকি। যেমন খালি পেটে ফল না খাওয়া, দুধের সঙ্গে ফল না খাওয়া। এর মধ্যে অনেকগুলোই ভুল ধারনা। চিকিত্সকরা জানাচ্ছেন, সঠিক নিয়ম মেনে ফল না খেলে হিতে বিপরীত ফল হতে পারে। এতে কিন্তু ওজন কমার বদলে বেড়ে যেতে পারে। জেনে নিন কী ভাবে ফল খাওয়া উচিত্।

১। ভরা পেটে- অনেকেরই ধারনা খাওয়ার পর ফল খেলে হজম ভাল হয়। এই ধারনা সম্পূর্ণ ভুল। খাওয়ার পর ফল খেলে তা হজম হতে অনেক সময় লাগে। ফল হজম না হয়ে অনেকক্ষণ পেটে থাকলে বুক জ্বালা, ঢেকুরের সমস্যা দেখা দেয়। ওজনও বাড়ে। তাই ভরা পেটে ফল না খেয়ে খালি পেটে ফল খান। এতে ফলের প্রয়োজনীয় উপাদান, জল, ফাইবার সহজে হজম হবে। শরীরের পক্ষেও ভাল।

২। খাবারের সঙ্গে- খাবারের সঙ্গে ফল খেলে ওজন কমে। এমন ভুল ধারনাও রয়েছে অনেকের। এটা কিন্তু ভরা পেটে ফল খাওয়ার মতোই মারাত্মক। এর থেকেও ওজন বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এক সঙ্গে অনেক রকম ফল খেতে পারেন। কিন্তু অন্য কোনও খাবারের সঙ্গে ফল খাবেন না।

৩। সকালে উঠে- অনেকেই মনে করেন সকালে উঠে খালি পেটে ফল খেলে অ্যাসিডিটি হয়। এটাও কিন্তু মিথ। ডায়েটিশিয়ানরা জানাচ্ছেন, সকালে উঠে খালি পেটে ফল খাওয়া সবচেয়ে ভাল অভ্যাস। এতে শরীর ফল থেকে সবচেয়ে বেশি উপকৃত হয়। হজম ভাল হয়। ফলের মধ্যে থাকা অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট শরীরের টক্সিন দূর করতেও সাহায্য করে।

৪। খাওয়ার মাঝে- ফল খাওয়ার আসল নিয়ম খাওয়ার আগে ও পরে। সাধারণত আমরা দিনে তিন বার(ব্রেকফাস্ট, লাঞ্চ, ডিনার) ভরপেট খেয়ে থাকি। ফল খেতে হলে ভরপেট খাওয়ার এক ঘণ্টা আগে বা দু’ঘণ্টা পর খান। তবে খাবারের পরিমাণের উপর ফল খাওয়ার সময়ও নির্ভর করবে। যদি খুব ভারী খাবার খান তাহলে অন্তত তিন থেকে চার ঘণ্টা পর ফল খান। যদি সালাড বা হালকা কোনও খাবার খেয়ে থাকেন তবে দেড় ঘণ্টা পরই ফল খেতে পারেন।

৫। শোওয়ার আগে- ঘুমোতে যাওয়ার আগে ফল খাওয়া অবশ্যই এড়িয়ে চলুন। ফলের মধ্যে থাকা শর্করা আপনার এনার্জি লেভেল বাড়িয়ে দেবে। ফলে ঘুম আসতে  দেরি হবে বা মাঝে মাঝেই রাতে ঘুম ভেঙে যেতা পারে।

৬। দুধের সঙ্গে- ছোট থেকেই শেখানো হয় দুধের সঙ্গে ফল খেতে নেই। কথাটা অনেক ক্ষেত্রেই সত্যি। নারকেলের দুধ বা বাদাম মিল্ক, ইয়োগার্টের সঙ্গে ফল খেতে পারেন। তবে অল্প পরিমাণে। বাদাম মিল্কের সঙ্গে একটা আপেল খেতেই পারেন। ড্রাই ফ্রুটের সঙ্গেও দুধ খাওয়া চলতে পারে।

সূত্র: আনন্দবাজার

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like