উ. কোরিয়ার রকেট উৎক্ষেপণে ঢাকার উদ্বেগ

                                                                                              উ. কোরিয়ার টিভিতে প্রচারিত খবর

বাংলামেইল : উত্তর কোরিয়ার দূর পাল্লার রকেট উক্ষেপণের ঘটনায় পশ্চিমা মহলের সঙ্গে একাত্মতা জানিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করলো বাংলাদেশ। বুধবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক বিবৃতিতে এ উদ্বেগের কথা জানানো হয়।

ঢাকা মনে করছে, উত্তর কোরিয়ার দূর পাল্লার রকেট উৎক্ষেপণ আন্তর্জাতিক মহলে উদ্বেগের সৃষ্টি করেছে।  তাদের অনুরোধ করা হয়েছে এমন কোনো কর্মকাণ্ড না করতে যাতে উত্তর এবং দক্ষিণ কোরিয়ার চাপা দেয়া পুরনো উত্তেজনা আবার নতুন করে ফিরে আসে।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, ‘এই কর্মকাণ্ড জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের নীতিমালার স্পষ্ট লঙ্ঘন।’

বাংলাদেশ আশা করছে, উত্তর কোরিয়া এমন সব কর্মকাণ্ড থেকে সংযত এবং বিরত থাকবে যাতে করে দুই কোরিয়ার মধ্যবর্তী উত্তেজনা বৃদ্ধি না পায়।

রোববার উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে প্রচারিত খবরে বলা হয়েছে, তারা পৃথিবীর কক্ষপথে সফলভাবে একটি স্যাটেলাইট স্থাপণ করেছে। ধারণা করা হয়, উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের একটি ঘাঁটি থেকে রকেটটি উৎক্ষেপণ করা হয়েছিল। এটি জাপানের ওকিনাওয়া দ্বীপের ওপর দিয়ে ওড়ে যায় বলে জানা গেছে। পিয়ংইয়ং জাতিসংঘের সংশ্লিষ্ট সংস্থাকে আগেই জানিয়েছিল যে, তারা কক্ষপথে একটি আর্থ অজারভেশন স্যাটেলাইট স্থাপন করতে চায়।

তবে যুক্তরাষ্ট্র, জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়া এই রকেট উৎক্ষেপণের নিন্দা জানিয়েছে। তারা রোববার রাতে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের একটি জরুরি বৈঠকও আহ্বান করেছে।

উত্তর কোরিয়া জোর দিয়ে বলেছে, এটি তাদের মহাকাশ বিষয়ক কর্মকাণ্ড যা পুরোপুরিই বৈজ্ঞানিক গবেষণা। তবে যুক্তরাষ্ট্র, দক্ষিণt কোরিয়া এবং এমনকি মিত্রদেশ চীনও বলছে, একটি আন্ত:মহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র তৈরির লক্ষ্যেই পিয়ংইয়ং এসব রকেট উৎক্ষেপণ করছে এবং এ প্রযুক্তির উন্নতি করার মাধ্যমে তারা যুক্তরাষ্ট্রেও হামলা চালাতে পারবে।

এর আগে গত ছয় জানুয়ারি একটি পারমাণবিক বোমার পরীক্ষা চালিয়ে বছরের শুরু থেকেই আন্তর্জাতিকভাবে সমালোচনার মুখে রয়েছে উত্তর কোরিয়া।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like